কাঁথা স্টিচে গাউন, মনামীর খোলা পিঠে কী লেখা?

মনামী বলেন, “আমার পোশাকে বাংলার নকশী কাঁথা তুলে ধরেছি। পাশ্চাত্যের সঙ্গে ঐতিহ্যের মিশেল বলা যায়।“

গ্লিটজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 31 March 2024, 06:23 AM
Updated : 31 March 2024, 06:23 AM

শাড়ি, ওড়না বা সালোয়ার কামিজে নকশী কাঁথা স্টিচের নকশা নতুন নয়। কিন্তু এই স্টিচ তোলা কাপড় দিয়ে ভিক্টোরিয়ান স্টাইলের গাউন তৈরির ভাবনা নতুনই বটে।

সাদা রঙের ওপর লাল সুতা দিয়ে ফুল পাতার কাজ করা এমন একটি গাউন পরে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন কলকাতার অভিনেত্রী মনামী ঘোষ।

তবে কেবল গাউনেই মনামি নজর কাড়েননি। খোলা পিঠে এঁকেছেন কবিতার পংক্তি।

সংবাদ প্রতিদিন লিখেছে, পাশ্চাত্যের সঙ্গে ঐতিহ্যের মিশেলে ফ্যাশনের নতুন সংজ্ঞা তৈরি করেছেন মনামী ঘোষ। এই পোশাকে মনামী হাজির হয়েছিলেন কলকাতা শহরের আইটিসি রয়েল বেঙ্গল হোটেলে। সেখানে বসেছিল এবারের ‘ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডস বাংলা ২০২৪’ এর আসর।

মনামীর খোলা পিঠে লেখা ছিল “অস্ফুট সেই না বলা কথা/ মনের আবেগের হারানো ব্যথা/ আঁকে আর লিখে শোকগাথা/ কত স্বপ্ন দিয়ে বোনে, নকশি কাঁথা।“

লাল ফিতা দিয়ে সেকেলে ধরনে চুলও বেঁধেছিলেন মনামী। হাতেও ছিল কাঁথা স্টিচের কাজ করা ব্যাগ।

মনামীর এই পোশাকের ছবি ছড়িয়ে পড়েছে সোশাল মিডিয়ায়। ইনস্টাগ্রামে অভিনেত্রী শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায় লিখেছেন ‘মনোমুগ্ধকর’।

রূপাঞ্জনা মিত্র বলেন, “ দুর্দান্ত দেখাচ্ছে তোকে।“

মনামী বলেন, “আমার পোশাকে বাংলার নকশী কাঁথা তুলে ধরেছি। পাশ্চাত্যের সঙ্গে ঐতিহ্যের মিশেল বলা যায়। গাউনটা পশ্চিমী পোশাক হলেও, তার উপর আমাদের বাংলার নকশী কাঁথার কাজ করা। লাল ফিতে দিয়ে কলা বিনুনি স্টাইলে চুলও বেঁধেছি।”

আগামীতে ভারতীয় বাংলা সিনেমায় প্রয়াত চলচ্চিত্রকার মৃণাল সেনকে নিয়ে সৃজিত মুখার্জির বায়োপিকে তার স্ত্রী গীতা সেনের চরিত্রে দেখা যাবে মনামীকে।

‘পদাতিক’ নামের এ সিনেমায় মৃণাল হয়েছেন বাংলাদেশের অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী।