ভোটে? মাহি বললেন, প্রধানমন্ত্রী সুযোগ দিলে

আগামী নির্বাচনে অংশ নিতে আগ্রহী মাহি। তবে এখন কোনো উপ-নির্বাচনে প্রার্থী হতে চাওয়ার খবরটি গুজব বলে উড়িয়ে দিলেন এই চিত্রনায়িকা।  

গ্লিটজ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 16 Nov 2022, 05:56 PM
Updated : 16 Nov 2022, 05:56 PM

কিছু দিন আগেই নেমেছেন রাজনীতিতে, এখন ফেইসবুকে দিলেন এলাকার আওয়ামী লীগ নেতা ও মানুষের সঙ্গে দেখা করার ছবি; তাতে প্রশ্ন উঠল, তবে কি আসছে নির্বাচনেই মাহিয়া মাহি প্রার্থী?

‘ভালবাসার রঙ’ দিয়ে চলচ্চিত্রে আসা এই চিত্রনায়িকা অবশ্য রাজনীতিতে রঙ ছড়ানোর ইচ্ছা অস্বীকার করছেন না; ‘অগ্নি’ তারকা বলেছেন, জনগণ চাইলে আর প্রধানমন্ত্রী সুযোগ দিলে তিনিও নেমে যাবেন ভোটের মাঠে।

নির্বাচনের বছর খানেক আগে গত অক্টোবরেই সরাসরি রাজনীতিতে যুক্ত হন মাহি। দুই বছর মেয়াদে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব নেন তিনি। পাশাপাশি সংগঠনটির রাজশাহী বিভাগীয় কমিটির আহ্বায়কেরও দায়িত্ব সামলাবেন।

গত বছরের ১৩ সেপ্টেম্বর তিনি বিয়ে করেন গাজীপুরের রাকিব সরকারকে, যিনি ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণবিষয়ক উপ কমিটির সদস্য। গাজীপুর বাসন থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হতে চাইছেন রাকিব, সেই প্রচারে স্বামীর পক্ষে মাহিও নেমেছেন।

তবে মাহির জন্ম চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার নাচোলে। সম্প্রতি পাশের এলাকা রাজশাহী-১ (তানোর-গোদাগাড়ি) এর আওয়ামী লীগের নেতাদের নিয়ে এলাকার মানুষের সঙ্গে দেখা করতে যান তিনি।

Also Read: মাহি এবার রাজনীতিতে

তার কিছু ছবি ফেইসবুকে দিয়ে মাহি লেখেন, “আজ তানোর উপজেলার প্রাণপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, ৩ নং পাঁচন্দর ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স, কৃষ্ণপুর ও গোদাগাড়ি উপজেলার বিবিডাইং, পাকড়ীমোড়, বারোঘাটি, কাঁকনহাট পৌরসভা, ললিতনগর বাজার এলাকার সকল শ্রেণী-পেশার মানুষের সাথে সৌজন্য সাক্ষাত ও মত বিনিময় কর। আপনাদের দোয়া ও ভালোবাসা আমার এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা।”

তার আগে আরও কয়েকটি ছবি আপলোড দিয়ে লেখেন, “ আজ গোদাগাড়ি উপজেলার বাসুদেবপুর, কামারপাড়া, মাটিকাটা, প্রেমতলী এলাকার আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের সাথে সৌজন্য সাক্ষাত করতে যাই।”
এই সব মিলিয়ে ‘বুধবার আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে একটি আসনের মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন’ বলে কয়েকটি গণমাধ্যমে যে খবর এসেছে, তাতে বিস্ময় প্রকাশ করেন মাহি।

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের জিজ্ঞাসায় তিনি বলেন, “এখন কেন মনোনয়ন নেব? নির্বাচন তো দেড় বছর পরে! এখন কিসের মনোনয়ন? তথ্যটা ভুল। যারা সংবাদ করেছে মনগড়া সংবাদ করেছে। এসব ভিত্তিহীন।”

আগামী নির্বাচনে অংশ নিতে চান কি না- জানতে চাইলে মাহি বলেন, “এটা এখনই বলা যাচ্ছে না। আমার পেশা তো রাজনীতি না। অনেক আগে থেকে সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করি। গ্রামে মানবিক কাজ করি। এখন যেহেতু অভিনয় থেকে ছুটিতে আছি, গ্রামে যাওয়া-আসা বেশি করছি। ফলে এখন মানুষের জন্য বেশি কাজ করতে পারছি। জনসাধারণের জন্য অনেকগুলো কাজের পরিকল্পনা আছে সামনে।”

“যদি আমার এলাকার লোকজন চায়; যদি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে ওই সুযোগ দেন, তাহলে অবশ্যই নির্বাচন করব,” নিজের ইচ্ছাটি জানিয়ে রাখেন তিনি।

Also Read: মা হচ্ছেন, খবর দিলেন মাহিয়া মাহি

মাহি এখন মা হতে যাচ্ছেন, ফলে অভিনয় কিছুটা কমিয়ে দিয়েছেন। পরে রাজনীতিতে সক্রিয় থাকলেও অভিনয় ছাড়বেন না বলে জানান তিনি।

মাহি বলেন, “আমার শারীরিক অবস্থার কারণে এখন একটু বিরতিতে আছি। অভিনয় আমার শেকড়। অভিনয় আমার ভিত্তি। আজকে আমি যে মাহিয়া মাহি হয়েছি, তা অভিনয় দিয়েই। রাজনীতি করলেও অবশ্যই সিনেমায় নিয়মিত থাকব।

“তবে একটা সময় যেমন বছরে ৮-১০টা করে সিনেমা মুক্তি পেত, তেমনটা আর করব না। অনেক বেছে বেছে কাজ করব। কারণ আমার সংসার আছে। বেবি হবে ইনশাল্লাহ। ঢালাওভাবে সিনেমা করতে পারব না। বেছে বেছে ভালো কাজগুলোই করব।”

২০১২ সালে ‘ভালোবাসার রঙ’ দিয়ে রুপালি জগতে অভিষেকের পর ৪০টির মতো সিনেমায় অভিনয় করেছেন মাহি। এর মধ্যে রয়েছে পোড়ামন, অগ্নি, দেশা: দ্য লিডার, কৃষ্ণপক্ষ, ঢাকা অ্যাটাকের মতো ব্যবসাসফল সিনেমা।

তবে এ বছরে তার তিনটি সিনেমা আশীর্বাদ, লাইভ ও যাও পাখি বলো তারে মুক্তি পেলেও তেমন দর্শক টানতে পারেনি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক