এ বছর বাংলাদেশকে ২০০ কোটি ডলার ঋণ দেবে এডিবি

এডিবিকে আরও উন্নয়ন সহযোগিতা দেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 20 Sept 2022, 02:24 PM
Updated : 20 Sept 2022, 02:24 PM

চলতি অর্থবছরে বাংলাদেশকে ২০০ কোটি ডলার ঋণ দেবে এডিবি।

মঙ্গলবার সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে এসে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের আবাসিক পরিচালক এডিমন গিন্টিং এই তথ্য জানান বলে অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

তাকে উদ্ধৃত করে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “বাংলাদেশ সরকারের উন্নয়ন লক্ষ্যের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে গৃহীত উন্নয়ন প্রকল্পে এ অর্থবছরে প্রায় ২ বিলিয়ন ডলার ঋণ সহায়তা প্রক্রিয়াধীন রেখেছে এডিবি।”

বাংলাদেশের উন্নয়ন সহযোগী হিসেবে এডিবি স্বাধীনতার পর থেকে এ পর্যন্ত ২ হাজার ৭৫৫ কোটি ডলার ঋণ সহায়তা দিয়েছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।

বাংলাদেশের পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়ে গিন্টিং বলেন, দেশের গ্রামীণ ও নগর উন্নয়নের ক্ষেত্রে সহায়তা অব্যাহত রাখা এবং জলবায়ু সহনশীল উন্নয়ন বিনিয়োগকে উৎসাহিত করবে তারা।

আগামী ২৬ থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর এডিবির বার্ষিক বোর্ড সভা হবে, তাতে অংশ নেবেন অর্থমন্ত্রী কামাল।

করোনাভাইরাস মহামারীর অর্থনৈতিক প্রভাব উত্তরণের লক্ষ্যে বাংলাদেশকে সহায়তা দেওয়ার জন্য এডিবিকে ধন্যবাদ জানান অর্থমন্ত্রী। পাশাপাশি এলডিসি থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণ পরবর্তী চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় এডিবিকে আরও উন্নয়ন সহযোগিতা দেওয়ার অনুরোধ জানান তিনি।

গিন্টিং বলেন, মহামারী কাটিয়ে উঠতে বাংলাদেশের সামাজিক এবং অর্থনৈতিক নিরাপত্তা পুনরুদ্ধারে এডিবি শুরু থেকেই বাংলাদেশের পাশে থেকে সহযোগিতা করছে। ভবিষ্যতেও দিয়ে যাবে।

বিশ্ব ব্যাংক ভাইস প্রেসিডেন্টের সাক্ষাৎ

বাংলাদেশে তিন দিনের সফরের দ্বিতীয় দিনে মঙ্গলবার সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী মুস্তফা কামালের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন বিশ্ব ব্যাংকের দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের নতুন ভাইস প্রেসিডেন্ট মার্টিন রেইজার।

তিনি গত ১ জুলাই দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ভাইস-প্রেসিডেন্ট এর দায়িত্ব গ্রহণ করেন। দায়িত্ব গ্রহণের পর সোমবার প্রথম সফরে বাংলাদেশে আসেন তিনি।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মার্টিন রেইজার বাংলাদেশের অগ্রগতির প্রশংসা করে একে অনেক দেশের জন্য ‘অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত’ বলেছেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ নিজেই তাদের অর্থনৈতিক নীতি গ্রহণ করবে, বিশ্ব ব্যাংক সহযোগী হিসাবে পাশে থাকবে।

বাংলাদেশের শিক্ষা, স্বাস্থ্য, বিদ্যুৎ, দুর্যোগ মোকাবেলা খাতসহ বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পে বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়ন রয়েছে। মহামারীকালীন বাজেট সহায়তা, সংক্রমণ মোকাবেলা এবং কোভিড টিকা কেনায় অর্থায়নের জন্য সংস্থাটিতে ধন্যবাদ জানান অর্থমন্ত্রী।

তিনি বলেন, “দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের বিভিন্ন উদ্যোগে বিশ্ব ব্যাংকের আরও ফলপ্রসূ অংশীদারিত্ব প্রয়োজন। ঢাকাকে আরও বাসযোগ্য করে গড়ে তুলতে বিশ্ব ব্যাংক বিভিন্ন দেশের অভিজ্ঞতা বাংলাদেশের সঙ্গে বিনিময় করতে পারে।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক