ঢাকায় আসছেন বিশ্ব ব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট

এক বিবৃতিতে মার্টিন রাইজার বলেছেন, “বাংলাদেশে আবার আসতে পেরে ও গুরুত্বপূর্ণ সংস্কার উদ্যোগগুলো নিয়ে সরকারের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যেতে পেরে আমি খুবই আনন্দিত “

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 11 Nov 2022, 10:25 AM
Updated : 11 Nov 2022, 10:25 AM

তিন দিনের সফরে ঢাকা আসছেন বিশ্ব ব্যাংকের দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ভাইস প্রেসিডেন্ট মার্টিন রাইজার।

বাংলাদেশে বিশ্ব ব্যাংকের নতুন আবাসিক প্রতিনিধি (বাংলাদেশ-ভুটান ও নেপাল) আব্দুল্লাই শেখকে সঙ্গে নিয়ে শনিবার তিনি ঢাকায় পৌঁছাবেন বলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

এই সফরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল ছাড়াও সরকারের উচ্চপদস্ত কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করবেন বিশ্ব ব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, “বাংলাদেশে আবার আসতে পেরে ও গুরুত্বপূর্ণ সংস্কার উদ্যোগগুলো নিয়ে সরকারের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যেতে পেরে আমি খুবই আনন্দিত। এসব সংস্কার বাংলাদেশের ঘুরে দাঁড়ানোর প্রচেষ্টাকে ত্বরান্বিত করবে, অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়ন, প্রবৃদ্ধি ও সব মানুষের জন্য সুযোগ সৃষ্টি করবে।”

সফরকালে বাংলাদেশে বিশ্ব ব্যাংকের পরবর্তী কান্ট্রি ডিরেক্টর আব্দুল্লাই শেখকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেবেন রাইজার। আব্দুল্লাই শেখ ২০২৩ সাল থেকে বাংলাদেশে দায়িত্ব পালন করবেন। এবারের সফরে বিশ্ব ব্যাংকের একটি প্রকল্পও ঘুরে দেখবেন তারা।

আব্দুল্লাই শেখ বিবৃতিতে বলেন, “উন্নয়নের বিভিন্ন সূচকে বাংলাদেশ ঈর্ষণীয় সাফল্য পেয়েছে। বিশেষ করে দারিদ্র্য কমিয়ে আনা, জলবায়ু পরিবর্তেনের সঙ্গে খাপ খাওয়ানোর বিভিন্ন উদোগ, দুর্যোগ মোকাবেলা এবং বিদ্যালয়ে উপস্থিতির ক্ষেত্রে লিঙ্গ সমতার দিকগুলোতে বাংলাদেশ বেশ ভালো করেছে।

“বাংলাদেশ ২০৩১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত হওয়ার লক্ষ্য নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে আমি এ দেশের সরকার ও জনগণের সঙ্গে নিবিড়ভাবে কাজ করার অপেক্ষায় আছি।”

আফ্রিকার দেশ সেনেগালের নাগরিকক শেখ আব্দুল্লাই ১৯৯৫ সাল থেকে বিশ্ব ব্যাংকের অর্থনীতিবিদ হিসাবে কাজ করছেন। ইতোমধ্যে তিনি বিভিন্ন দেশে নেতৃত্বস্থানীয় পদে দায়িত্ব পালন করেছেন।

ক্যামেরুন, সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিক, গিনি, গ্যাবন ও কঙ্গোতে তিনি বিশ্ব ব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টরের দায়িত্ব পালন করেছেন। আফগানিস্তান, মিয়ানমার ও মালদ্বীপে ছিলেন বিশ্ব ব্যাংকের কান্ট্রি ম্যানেজার।

স্বাধীনতার পর থেকেই বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ উন্নয়ন সহযোগী হিসাবে কাজ করছে বিশ্ব ব্যাংক। অনুদান ও ঋণ হিসাবে এ পর্যন্ত ৩৭ বিলিয়ন ডলার বাংলাদেশকে দিয়েছে আন্তর্জাতিক এ আর্থিক প্রতিষ্ঠান।

বর্তমানে বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়নে ১৫ দশমিক ৭ বিলিয়ন ডলারের মোট ৫৫টি প্রকল্প প্রকল্প চলমান আছে বাংলাদেশে।

ইউক্রেইন রাশিয়ার যুদ্ধ ও বৈশ্বিক মূল্যস্ফীতির কারণে অর্থনৈতিকভাবে চাপে থাকা বাংলাদেশ ইতোমধ্যে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল আইএমএফের পাশাপাশি বাজেট সহায়তা হিসাবে বিশ্ব ব্যাংক থেকে এক বিলিয়ন ডলারের ঋণ চেয়েছে। এই ঋণ নিয়ে ওয়াশিংটনে দুই পক্ষের মধ্যে প্রাথমিক আলোচনাও হয়েছে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক