চলমান সংকটেও বিশ্ব ব্যাংকের সহায়তা থাকবে: রেইজার

সংস্থাটির কাছ থেকে এক বিলিয়নের মধ্যে ৫০ কোটি ডলার বাজেট সহায়তার আশা করছে বাংলাদেশ।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 14 Nov 2022, 02:50 PM
Updated : 14 Nov 2022, 02:50 PM

বর্তমান অর্থনৈতিক পরিস্থিতিতে চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে বাংলাদেশের স্থিতিশীল ও অর্ন্তভুক্তিমূলক প্রবৃদ্ধি ধরে রাখতে বিশ্ব ব্যাংকের সহায়তা বজায় থাকবে বলে জানিয়েছেন সংস্থাটির দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ভাইস প্রেসিডেন্ট মার্টিন রেইজার।

সোমবার সফরের শেষ দিন তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতকালেও বাংলাদেশের উন্নয়ন প্রচেষ্টায় বিশ্ব ব্যাংকের সমর্থন চালিয়ে যাওয়ার কথাও বলেন তিনি।

বৈশ্বিক চাপে অর্থনীতির চলমান সংকট বিশেষ করে ডলারের বাড়তি চাহিদা সামলাতে আইএমএফ ও বিশ্ব ব্যাংকের কাছ থেকে সাড়ে পাঁচ বিলিয়ন ডলার ঋণ চাওয়ার আবেদন ও আলোচনার মধ্যেই রেইজার তিন দিনের সফরে ঢাকায় আসেন।

তার আসার তিন দিন আগেই সাড়ে চার বিলিয়ন ডলার ঋণ নিয়ে ঢাকায় দীর্ঘ আলোচনা শেষে আইএমএফের সফরকারী প্রতিনিধি দল ফিরে যায়।

বিশ্ব ব্যাংকের সঙ্গেও এক বিলিয়ন ডলার বাজেট সহায়তা পাওয়ার বিষয়ে আলোচনার মধ্যেই উন্নয়ন সহযোগী সংস্থাটির দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ভাইস প্রেসিডেন্ট দ্বিতীয়বারের মত ঢাকায় এলেন।

সফরের দ্বিতীয় দিন গত রোববার অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সঙ্গে বৈঠকেও এ ঋণের বিষয়টি তুলেছিলেন মন্ত্রী।

বৈঠকে বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়নে বাংলাদেশে চলমান ও ভবিষ্যতে শুরু হবে, এমন সব প্রকল্প নিয়ে আলোচনা হয়েছে। অর্থমন্ত্রী বাজেট সহায়তা হিসেবে আরও কিছু স্বল্প সুদের ঋণ চেয়েছেন বিশ্ব ব্যাংক প্রতিনিধি দলের কাছে।

অর্থমন্ত্রী চলতি অর্থবছরে আরও ৫০ কোটি ডলার বাজেট সহায়তা পাওয়া যাবে বলে জানান।

সফরকালে রেইজার প্রধানমন্ত্রীর শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ, বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদারের সঙ্গেও বৈঠক করেন।

এসব বৈঠকে বৈশ্বিক অর্থনীতির ধাক্কা সামলাতে বাংলাদেশের নীতি ও পদক্ষেপ গ্রহণ এবং স্থিতিশীল অর্থনীতির জন্য করণীয় নিয়ে আলোচনা হয় বলে সফর শেষে বিশ্ব ব্যাংকের ঢাকা কার্যালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

এতে বলা হয়, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবিলা ও দুর্যোগের প্রস্তুতিতে বাংলাদেশের নেতৃত্বাস্থানীয় ভূমিকার জন্য সৌজন্য সাক্ষাতকালে রেইজার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

উন্নয়নের পথে গত ৫০ বছর ধরে বাংলাদেশের অগ্রযাত্রার প্রশংসা করে তিনি বলেন, এ কার্যক্রমের অংশীদার হতে পেরে বিশ্ব ব্যাংক গর্বিত।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের সময় রেইজার বাংলাদেশ ও বিশ্ব ব্যাংকের মধ্যকার সম্পর্কের ৫০ বছর পূর্তি যৌথভাবে উদযাপনের প্রস্তাবও দেন।

বর্তমান বৈশ্বিক সংকটের কথা তুলে ধরে সংস্থাটির ভাইস প্রেসিডেন্ট বলেন, ইউক্রেইন যুদ্ধ, কোভিড মহামারীর প্রভাব ও জলবায়ু সংকট বিশ্ব অর্থনীতিতে অভূতপূর্ব চ্যালেঞ্জ তৈরি করেছে। প্রতিটি দেশই এসব নিয়ে ভুগছে, বাংলাদেশও এর ব্যতিক্রম নয়।

বাংলাদেশ সামষ্টিক, বার্ষিক ও আর্থিক খাতের সংস্কারের মাধ্যমে দ্রুত প্রবৃদ্ধির ধারা বহাল রাখতে পারবে বলে আশা তার। বর্তমান এই সংকটের সময় বিশ্ব ব্যাংক সহায়তা চালিয়ে যাবে বলেও জানান তিনি।

বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়নে বাংলাদেশে বর্তমানে ৫৫টি প্রকল্প বাস্তবায়ন হচ্ছে। এতে প্রায় ১ হাজার ৫৭০ কোটি ডলার অর্থায়ন করছে সংস্থাটি।

আরও পড়ুন

Also Read: উন্নয়নে বিশ্বকে ‘চমকে’ দিয়েছে বাংলাদেশ: বিশ্ব ব্যাংক

Also Read: বিশ্ব ব্যাংকের কাছে আরও ঋণ চাইলেন অর্থমন্ত্রী

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক