বিএম কন্টেইনার ডিপোতে অগ্নিকাণ্ড: বিশেষজ্ঞ তদন্ত কমিটি গঠনের নির্দেশ

কমিটি গঠন করে আগামী তিন মাসের মধ্যে এ বিষয়ে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলেছে হাই কোর্ট।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 10 August 2022, 02:45 PM
Updated : 10 August 2022, 02:45 PM

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে বিএম কন্টেইনার ডিপোর অগ্নিকাণ্ড ও বিস্ফোরণের ঘটনা তদন্তে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের একজন অধ্যাপকের নেতৃত্বে বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠনের নির্দেশ দিয়েছেন হাই কোর্ট।

বুধবার বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচরপতি কাজী ইজারুল হক আকন্দের হাই কোর্ট বেঞ্চ জনস্বার্থে দায়ের করা এক রিটের শুনানি নিয়ে কয়েকটি রুলসহ এ আদেশ দেয়।

দুই মাস আগের ওই আগুন ও বিস্ফোরণের কারণ এবং কার কী দায় - তা নিরূপণ করতে সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞদের সমন্বয়ে এই কমিটি গঠন করতে জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের সচিবকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

কমিটি গঠন করে আগামী তিন মাসের মধ্যে এ বিষয়ে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে আদেশে।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মোহাম্মদ হুমায়ন কবির। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অরবিন্দ কুমার রায়।

রুলে বিএম কনটেইনার ডিপোর অগ্নিকাণ্ড ও বিস্ফোরণের ঘটনায় বিশেষজ্ঞ তদন্ত কমিটি গঠন করতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না জানতে চাওয়া হয়েছে।

নিহত ও আহতদের পরিবারকে কেন পর্যাপ্ত পরিমাণ ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে না, সংশ্লিষ্টদের দায়িত্ব পালনে ব্যর্থতা ও অবহেলা কেন অবৈধ ও বেআইনি ঘোষণা করা হবে না তাও জানতে চাওয়া হয়েছে রুলে।

আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে বাণিজ্য সচিব, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ সচিব, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ সচিব, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব, আইন মন্ত্রণালয়ে লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগ সচিব, শিল্প সচিব, ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান, এনবিআর চেয়ারম্যান, চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক, স্মার্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান ও এমডি, বিএম কনটেইনার বিডি লিমিটেডের এমডিসহ সংশ্লিষ্ট বিবাদীদেকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

আদেশের বিষয়ে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অরবিন্দ কুমার রায় বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “আদালত বিশেষজ্ঞ তদন্ত কমিটি গঠন করতে বলেছেন। এই কমিটি অগ্নিকাণ্ডের কারণ কী কী ছিল তা বের করবে এবং এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় কার কী দায়-দায়িত্ব ছিল তাও এই কমিটির নিরূপণ করবে। কমিটিকে এ বিষয়ে তদন্ত করে ৯০ দিনের মধ্যে একটি প্রতিবেদন দিতে বলেছে কোর্ট।”

এর আগে গত ২৯ জুন ল অ্যান্ড লাইফ ফাউন্ডেশন ট্রাস্টের পক্ষে রিটটি করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মোহাম্মদ হুমায়ন কবির।

গত ৪ জুন রাতে সীতাকুণ্ডের সোনাইছড়ি ইউনিয়নের কেশবপুর গ্রামে বেসরকারি বিএম কন্টেইনার ডিপোতে আগুন লাগার পর একের পর এক বিস্ফোরণে তা ছড়িয়ে পড়ে।

ফায়ার সার্ভিস, সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী এবং সরকারের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মীদের চার দিনের চেষ্টায় সেই আগুন নেভানো সম্ভব হয়।

বাংলাদেশ ও নেদারল্যান্ডসের দুই কোম্পানির যৌথ বিনিয়োগে বেসরকারি এই ইনল্যান্ড কন্টেইনার ডিপোটি গড়ে তোলা হয় ২০১১ সালে। এর মালিকানায় আছেন বাংলাদেশের স্মার্ট গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান এবং তার ছোট ভাই চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের নেতা মুজিবুর রহমান।

এই অগ্নিকাণ্ড ও বিস্ফোরণের ঘটনায় ৫২ জনের মৃত্যু হয়।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক