টেস্ট ক্রিকেটে দর্শক ফেরাচ্ছে বাজবল, অভিমত বোথামের

ইংল্যান্ডের সাবেক এই অধিনায়ক মনে করেন, টেস্ট ক্রিকেটের প্রতি মানুষের আগ্রহ বাড়াচ্ছে তার উত্তরসূরীদের বিনোদনদায়ী খেলার ধরন।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 7 Feb 2024, 01:27 PM
Updated : 7 Feb 2024, 01:27 PM

‘মৃত্যু পথযাত্রী’, টেস্ট ক্রিকেট নিয়ে প্রায়ই উচ্চারিত হয় এই শব্দ যুগল। তবে এখন অভিজাত এই সংস্করণকে আগের চেয়ে ভালো অবস্থায় দেখছেন ইয়ান বোথাম। ইংল্যান্ডের সাবেক এই অলরাউন্ডার মনে করেন, সাদা পোশাকের ক্রিকেটকে পুনরুজ্জীবিত করেছে তার উত্তরসূরীদের রোমাঞ্চকর ‘বাজবল’ ঘরানা।

নিউ জিল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক ব্রেন্ডন ম্যাককালাম ইংল্যান্ড টেস্ট দলের প্রধান কোচ ও বেন স্টোকস অধিনায়ক হওয়ার পর এই সংস্করণে আগ্রাসী ক্রিকেটের পথ বেছে নেয় দলটি। ম্যাককালামের ডাক নাম ‘বাজ’ থেকে তাদের এই কৌশল পরিচিত পেয়ে যায় বাজবল নামে।

গত কয়েক বছর ধরে ইংল্যান্ডের এই ঘরানা নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা চলছে। সম্প্রতি যেমন ভারতের বিপক্ষে বিশাখাপাত্নাম টেস্টে ১০৬ রানে হারের পর ইংল্যান্ড দলের খেলার ধরন নিয়ে কড়া সমালোচনা করেছেন সাবেক ইংলিশ অধিনায়ক জেফ বয়কট। 

যেকোনো সংস্করণেই আগ্রাসী ক্রিকেট ঝুঁকিপূর্ণ। তবে এই পথে হেঁটে টেস্টে ব্যর্থতার চেয়ে সফলতাই বেশি পাচ্ছে ইংল্যান্ড। দলটির আরেক সাবেক অধিনায়ক বোথাম তাই ‘বাজবল’ কৌশলের পক্ষে।

তার মতে, খেলাধুলা মানেই বিনোদন। আর ইংল্যান্ড দল টেস্টে সেটাই করছে। আর তাতে এই সংস্করণের প্রতি আগ্রহ বাড়ছে দর্শকদের। অস্ট্রেলিয়ার এসইএন রেডিওতে বোথাম বলেন, বাজবলের কারণেই মুমূর্ষু অবস্থা থেকে উন্নতির দিকে যাচ্ছে টেস্ট ক্রিকেট।  

“আপনাকে দর্শকের ভিড়ের দিকে তাকাতে হবে। দর্শকরা এখন টেস্ট ক্রিকেটমুখী হচ্ছে। ২০-৩০ বছর আগে ভারতের মাটিতে খেলার সময় মাঠ দর্শকে ঠাসা থাকত। হঠাৎই আইপিএল এলো আর ওয়ানডে ক্রিকেটে দর্শকের ভিড় কমে গেল। মানুষ এখন ফিরে আসছে এবং (বাজবল) দেখতে চাইছে।”

“দিন শেষে আমরা তো বিনোদনের খোরাক জোগাই। আমরা যদি চাই মানুষ খেলাটি দেখতে আসুক, তাহলে আমাদের বিনোদন দিতেই হবে। আপনি একটি বা দুটি ম্যাচ হারতে পারেন, ইংল্যান্ড ১৫ ম্যাচ খেলে ১২টিতেই জিতেছে। ইংল্যান্ড ম্যাচের পাঁচ দিনের সব টিকেট বিক্রি হয়ে গেছে, যেটা খুব বিরল। অনেক লম্বা সময় ধরে যেমন ছিল টেস্ট ক্রিকেট এখন তার চেয়ে ভালো অবস্থায় আছে।”