বদলে ফেলা হয়েছে প্রথম সেমি-ফাইনালের পিচ

শেষ মুহূর্তের সিদ্ধান্তে আগে ব্যবহৃত পিচেই হবে ভারত ও নিউ জিল্যান্ডের সেমি-ফাইনাল ম্যাচ।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 15 Nov 2023, 07:48 AM
Updated : 15 Nov 2023, 07:48 AM

বিশ্বকাপের নক-আউট পর্ব শুরুর আগে সামনে এলো পিচ বিতর্ক। ভারত ও নিউ জিল্যান্ডের প্রথম সেমি-ফাইনাল ম্যাচে নতুন পিচের বদলে খেলা হবে আগের ব্যবহৃত পিচে। 

ক্রিকেট ওয়েবসাইট ইএসপিএনক্রিকইনফোর প্রতিবেদনে জানা গেছে, মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে বুধবার ৭ নম্বর পিচে হওয়ার কথা ছিল বিশ্বকাপের প্রথম সেমি-ফাইনাল। শেষ মুহূর্তে সিদ্ধান্ত বদলে এখন ম্যাচটি হবে ৬ নম্বর পিচে। 

টুর্নামেন্টে এখন পর্যন্ত ৭ নম্বর পিচে কোনো ম্যাচ খেলা হয়নি। নক-আউট পর্বের জন্যই মূলত তৈরি করা হয়েছিল এটি। ৬ নম্বর পিচে হয়েছে দুটি ম্যাচ। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৩৯৯ রান করে ২২৯ রানে জিতেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। আর ৩৫৫ রান করে শ্রীলঙ্কাকে ৩০২ রানে হারিয়েছিল ভারত। 

সূত্রের বরাতে ইএসপিএনক্রিকইনফো জানিয়েছে, ওয়াংখেড়ের পাঁচ ম্যাচের জন্য পিচের ধারা ছিল ৬-৮-৬-৮-৭। এখন পর্যন্ত ৬-৮-৬-৮ ব্যবহার করা হয়েছে। শেষ ম্যাচে তাই ৭ নম্বর পিচ ব্যবহার করার সিদ্ধান্তই ছিল এত দিন।  

বিশ্বকাপের জন্য আইসিসির প্লেয়িং কন্ডিশন অনুযায়ী, যে কোনো ম্যাচের পিচ নির্ধারণ ও প্রস্তুত করতে স্ব-স্ব মাঠ কর্তৃপক্ষ ঠিক করবে। এক্ষেত্রে এই দায়িত্ব মুম্বাই ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন এবং আইসিসির স্বতন্ত্র পিচ কনসালটেন্ট অ্যান্ডি অ্যাটকিনসনের।


ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইল তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছেন, হুট করে পিচ পরিবর্তনের সিদ্ধান্তে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন অ্যাটকিনসন। ফাঁস হওয়া একটি ই-মেইলে তিনি সন্দেহ প্রকাশ করেছেন, ‘আহমেদাবাদে ফাইনাল ম্যাচটি বিশ্বকাপ ইতিহাসের প্রথম এমন ম্যাচ হবে, যেখানে টিম ম্যানেজমেন্ট অথবা/এবং স্বাগতিক বোর্ডের অনুরোধ অনুযায়ী পিচ তৈরি করা হয়েছে।’

আইসিসির নীতিমালায় কোথাও উল্লেখ করা নেই, নক-আউট ম্যাচের জন্য অব্যবহৃত পিচই ব্যবহার করতে হবে। পিচ ও আউটফিল্ডের ব্যাপারে সম্ভাব্য সেরা পিচ ও আউট ফিল্ড ব্যবহারের কথা বলা আছে।

চার বছর আগে ইংল্যান্ডে হওয়া বিশ্বকাপে দুটি সেমি-ফাইনাল ম্যাচই হয় অব্যবহৃত পিচে। তবে গত বছর অস্ট্রেলিয়ায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে আবার টুর্নামেন্টে আগে ব্যবহৃত পিচেই খেলা হয় সেরা চারের ম্যাচ দুটি। 

ওয়াংখেড়েতে ম্যাচের আগের দিন ভারত ও নিউ জিল্যান্ডের ক্রিকেটাররা কাছ থেকেই পিচ পরিদর্শন করেছেন। বুধবার বাংলাদেশ সময় দুপুর আড়াইটায় ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে মুখোমুখি হচ্ছে তারা।