২০২৭ অনূর্ধ্ব-১৯ নারী বিশ্বকাপ বাংলাদেশে

নেপালের সঙ্গে যৌথভাবে অনূর্ধ্ব-১৯ নারী বিশ্বকাপের তৃতীয় আসর আয়োজন করবে বাংলাদেশ।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 13 Nov 2022, 06:26 AM
Updated : 13 Nov 2022, 06:26 AM

বয়সভিত্তিক ক্রিকেটের পরবর্তী ৪ বিশ্বকাপের স্বাগতিক দেশ চূড়ান্ত করেছে আইসিসি। ২০২৪ থেকে ২০২৭ পর্যন্ত চক্রে পুরুষ ও নারীদের দুটি করে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের জন্য সাতটি দেশকে আয়োজক হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

আইসিসি রোববার সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, ২০২৭ সালের অনূর্ধ্ব-১৯ নারী বিশ্বকাপের যৌথ আয়োজক বাংলাদেশ ও নেপাল। দুই বছর পর এই টুর্নামেন্ট হবে মালয়েশিয়া ও থাইল্যান্ডে।

২০২৪ সালে অনূর্ধ্ব-১৯ পুরুষ বিশ্বকাপ আয়োজনের দায়িত্ব পেয়েছে শ্রীলঙ্কা। দুই বছর পরের আসরের যৌথ আয়োজক জিম্বাবুয়ে ও নামিবিয়া।

২০২৪ সালের নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আসর বসবে বাংলাদেশে। এর আগে ২০১৪ সালের পুরুষ ও নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আয়োজক ছিল তারা।

বাংলাদেশে অনুষ্ঠেয় ২০২৪ নারী বিশ্বকাপের ১০ দল বাছাইয়ের প্রক্রিয়াও চূড়ান্ত করেছে আইসিসি। আসরে মোট ৮টি দল সরাসরি অংশ নেবে।

২০২৩ সালের নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দুই গ্রুপের সেরা তিনটি করে মোট ছয় দল পাবে ২০২৪ আসরের টিকেট। স্বাগতিক হিসেবে সরাসরি খেলবে বাংলাদেশ। আরেকটি দল আসবে ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ তারিখের র‍্যাঙ্কিং অনুযায়ী।

বাংলাদেশ যদি গ্রুপের শীর্ষ তিনে থাকে, তাহলে এই ছয় দলের বাইরে র‍্যাঙ্কিংয়ের সেরা দুটি দেশ পাবে বিশ্বকাপের টিকেট। আর টুর্নামেন্টের বাকি দুই দল আসবে বৈশ্বিক বাছাইপর্ব পেরিয়ে।

এছাড়া ২০২৭ সালের পুরুষ ওয়ানডে বিশ্বকাপের ১৪ দল বাছাইয়ের প্রক্রিয়াও চূড়ান্ত করা হয়েছে। যেখানে সরাসরি জায়গা পাবে ১০টি দল।

আয়োজক দেশ হিসেবে সরাসরি খেলবে দক্ষিণ আফ্রিকা ও জিম্বাবুয়ে। এই দুই দলে বাদে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে (যা এখনও ঠিক হয়নি) র‍্যাঙ্কিংয়ের সেরা ৮ দল সরাসরি পাবে বিশ্বকাপের টিকিট। বাকি চার দল আসবে বাছাইপর্ব থেকে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক