ফর্মে থাকা ইমরুল যে কারণে একাদশের বাইরে

প্রথম তিন ম্যাচেই রানের দেখা পাওয়া অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানকে দেখা পায়নি কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের মঙ্গলবারের ম্যাচে।

ক্রীড়া প্রতিবেদকসিলেট থেকেবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 30 Jan 2024, 01:46 PM
Updated : 30 Jan 2024, 01:46 PM

প্রথম দুই ম্যাচে ফিফটি, পরেরটিতেও  দলের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক। কিন্তু কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের চতুর্থ ম্যাচে দেখা গেল না ইমরুল কায়েসকে। তার না থাকা কৌতূহলেরও জন্ম দিল বেশ। সব ম্যাচে খেলানো হবে না বলেই এবার তাকে নেতৃত্ব দেয়নি কুমিল্লা। তাহলে কি দলীয় ভারসাম্যের জন্য এই ম্যাচে বাইরে রাখা হলো তাকে নাকি বিশ্রাম অথবা চোট! সেই প্রশ্নের উত্তর পাওয়া গেল ম্যাচ শেষে।

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে ৮ রানে হেরে যায় কুমিল্লা। ছন্দে থাকা ইমরুলের অনুপস্থিতিতে ১৬৬ রানের লক্ষ্য ছুঁতে পারেনি চারবারের চ্যাম্পিয়নরা।

টসের সময় অধিনায়ক লিটন কুমার দাস স্রেফ জানান, ইমরুল নেই একাদশে। কোনো কারণ তিনি জানাননি বা সঞ্চালকও তাকে জিজ্ঞেস করেননি। কুমিল্লার ম্যানেজার ও সাবেক ক্রিকেটার আহসানউল্লাহ হাসান ফোনে স্রেফ ইমরুলের চোটের কথা জানিয়েই কেটে দিলেন কল।

পরে ম্যাচ শেষে আরেকটু ভালেভাবে তা ব্যাখ্যা করলেন কুমিল্লার মিডিয়া ম্যানেজার সোহানুজ্জামান।

“ইমরুল কায়েসের হাঁটুতে ব্যথা আছে। আজকের ম্যাচটি খেলার অবস্থায় ছিলেন না তিনি। তবে গুরুতর কিছু নয়। আমরা আশা করছি, পরের ম্যাচ থেকে মাঠে ফেরার জন্য প্রস্তুত থাকবেন ইমরুল।”

এবারের আসর শুরুর আগে অধিনায়কত্ব হারান টানা তিন আসরে দলকে শিরোপা জেতান ইমরুল। তার জায়গায় দায়িত্ব দেওয়া হয় লিটন কুমার দাসকে। স্রেফ ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলে মিরপুরে প্রথম ম্যাচেই ইমরুল করেন ৫২ বলে ৬৬ রান। পরেরটিতে তার ব্যাট থেকে আসে ৪১ বলে ৫২ রানের ইনিংস। 

পরে সিলেটে এসেও ইমরুল পান রানের দেখা। সিলেট স্ট্রাইকার্সের বিপক্ষে অল্প রানের ম্যাচে ২৯ বলে করেন ৩০ রান। তিন ম্যাচেই দলের সবচেয়ে বেশি রান তার। তৃতীয় ম্যাচটিতেই কাভারে ফিল্ডিংয়ের সময় বল থামাতে গিয়ে হাঁটুতে আঘাত পান তিনি।

ইমরুলের চোটে সুযোগ পাওয়া মাহিদুল ইসলামও উপহার দেন ফিফটি। টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের প্রথম ফিফটির স্বাদ পান তিনি। রংপুরের বিপক্ষে তিনে নেমে চারটি চার ও ৩ ছক্কায় খেলেন ৫৫ বলে ৬৩ রানের ইনিংস।

তবে দলের ৮ রানের হারের পর নিজেকেই কাঠগড়ায় তুললেন তিনি আরেকটু দ্রুততায় রান তুলতে না পারার জন্য।

“আমার মনে হয়, আমি আরও কিছু ভালো শট খেলতে পারতাম। আর কিছু ডট কম হলে মনে হয় ভালো হতো। আমার ইনিংসে আরও ১০ রান বেশি হলে হয়তো ম্যাচটা সহজে জিততে পারতাম।”