‘কোহলিকে নেতৃত্ব থেকে আমি সরাইনি’

পুরনো বিতর্ক নিয়ে নতুন করে মুখ খুললেন বিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 5 Dec 2023, 03:27 PM
Updated : 5 Dec 2023, 03:27 PM

ভারতের টি-টোয়েন্টি দলের নেতৃত্ব নিজ থেকে ছেড়ে দেওয়ার পর ভিরাট কোহলিকে সরিয়ে দেওয়া হয় ওয়ানডের দায়িত্ব থেকে। পরে টেস্ট দলের অধিনায়কের পদ থেকেও সরে দাঁড়ান তিনি। কোহলির নেতৃত্ব ছাড়ার পুরো সময়টায় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি ছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলি। ওই সময় তার দিকেই অভিযোগের আঙুল তুলেছিলেন অনেকে। তবে ভারতের সাবেক এই অধিনায়কের দাবি, কোহলির নেতৃত্ব হারানো কিংবা ছাড়ার ক্ষেত্রে তার কোনো ভূমিকা ছিল না। 

২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দলের ব্যর্থতার পর এই সংস্করণের নেতৃত্বকে বিদায় বলে দেন কোহলি। বিশ্বকাপের পর তাকে ওয়ানডে নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দিয়ে সাদা বলের দুই সংস্করণেই অধিনায়ক করা হয় রোহিত শার্মাকে।

ভারতীয় বোর্ড-বিসিসিআইয়ের তখনকার প্রধান সৌরভ ওই সময়ে বলেছিলেন, কোহলিকে টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক হিসেবে চালিয়ে যেতে বলা হলেও তিনি সেই অনুরোধ রাখেননি। তাই বাধ্য হয়ে ওয়ানডের নেতৃত্বেও তারা বদল আনেন, কারণ সাদা বলের দুই সংস্করণে একজন অধিনায়কই তারা রাখতে চান।

তবে ওই বছরের শেষ দিকে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে যাওয়ার আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে সৌরভের দাবি উড়িয়ে দিয়ে কোহলি বলেন, কেউ তাকে টি-টোয়েন্টি অধিনায়কত্ব চালিয়ে যেতে কোনোরকম অনুরোধ করেননি এবং তার সিদ্ধান্ত বোর্ড খুব ভালোভাবে নিয়েছে। ভারতীয় ক্রিকেটের প্রভাবশালী দুজনের দুইরকম বক্তব্যে ছড়ায় বিভ্রান্তি।

কলকাতার জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো ‘দাদাগিরি আনলিমিটেড সিজন টেন’-এ বিষয়টি নিয়ে নিজের অবস্থান স্পট করলেন অনুষ্ঠানের সঞ্চালক সৌরভ।

“ভিরাট কোহলিকে আমি অধিনায়কত্ব থেকে সরাইনি। এটা আমি বহুবার বলেছি। সে টি-টোয়েন্টির নেতৃত্ব ছাড়তে চেয়েছিল। তখন আমি তাকে বলেছিলাম, টি-টোয়েন্টিতে অধিনায়কত্ব করার যেহেতু আগ্রহ নেই, তাই ভালো হয় যদি সাদা বলের দুই সংস্করণের নেতৃত্বই ছেড়ে দাও। সাদা ও লাল বলে আলাদা অধিনায়ক থাকুক।”

কোহলির জায়গায় সাদা বলের ক্রিকেটের দায়িত্ব দেওয়া রোহিতকে পরে করা হয় টেস্টের অধিনায়কও। তবে এই ওপেনার তিন সংস্করণে দলকে নেতৃত্ব দিতে আগ্রহী ছিলেন না বলে দাবি করলেন সৌরভ।

“রোহিতকে অধিনায়ক হওয়ার জন্য কিছুটা চাপ দিয়েছিলাম। কারণ সে তিন সংস্করণেই নেতৃত্ব দিতে রাজি ছিল না। তাই এখানে (রোহিতের অধিনায়ক হওয়ার পেছনে) আমার কিছুটা ভূমিকা হয়তো ছিল। তবে প্রশাসনে কে আছে, তার চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো খেলোয়াড়রা, যারা মাঠে ভালো করে। আমাকে বিসিসিআইয়ের প্রেসিডেন্ট হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল ভারতীয় ক্রিকেটের ভালোর জন্য, এটা তারই ছোট একটা অংশ মাত্র।”