পরিবেশবান্ধব ৬৮ প্রকল্পের ঋণে সুদ কমলো

আট বছরে র বে শি সময়ে র জন্য নে ওয়া এ ধরনে র ঋণে র ক্ষে ত্রে সুদ হা র হবে সর্বো চ্চ ৬ শতাং শ।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 July 2022, 04:44 PM
Updated : 24 July 2022, 04:44 PM

পরিবেশবান্ধব আবসন প্রকল্প, পণ্য বিপণন ও উদ্যোগ বাস্তবায়নে স্বল্প সুদে মেয়াদী ঋণে পুনঃঅর্থায়ন তহবিলের সুবিধা বাড়িয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। একইসঙ্গে সুদহারও কমিয়ে আনা হয়েছে ১ শতাংশ পয়েন্ট।

এই তহবিলের অধীনে পণ্য সংখ্যা ১৩ থেকে বাড়িয়ে ৬৮টিতে উন্নীত করে রোববার প্রজ্ঞাপন জারি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। সেখানে বলা হয়েছে, আট বছরের বেশি সময়ের জন্য নেওয়া এ ঋণের ক্ষেত্রে সুদ হার হবে সর্বোচ্চ ৬ শতাংশ।

‘এফোর্ডেবল গ্রিন হাউজিং’ সুবিধায় নিম্ন ও মধ্যবিত্ত শ্রেণির জন্য বহুতল ভবনে সর্বোচ্চ ৭৫০ বর্গফুট আয়তনের ফ্ল্যাটের বিপরীতে ৩০ লাখ টাকা ঋণ নেওয়ার সুযোগ রাখা হয়েছে। বহুতল ভবনটি পরিবেশবান্ধব হতে হবে।

তৈরি পোশাক খাতে ‘সার্টিফায়েড গ্রিন বিল্ডিং’য়ের বিপরীতেও এ প্রকল্প থেকে ঋণ নেওয়া যাবে।

পরিবেশবান্ধব পণ্য ও উদ্যোগকে উৎসাহিত করতে ২০০৯ সালে ‘পুনঃঅর্থায়ন স্কিম’ নামে ২০০ কোটি টাকার এ তহবিল গঠন করা হয়। পরে পণ্য সংখ্যা বাড়িয়ে তহবিলের আকার ৪০০ কোটি টাকায় উন্নীত করা হয় ২০২০ সালে।

এ তহবিল থেকে ঋণ নিতে ব্যাংক রেটের (সময়ে সময়ে যা পরিবর্তনশীল... বর্তমানে ৪ শতাংশ) সঙ্গে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সুদ হার যোগ হত।

রোববারের প্রজ্ঞাপনে বাংলাদেশ ব্যাংক জানিয়েছে, ব্যাংক রেটের (৪ শতাংশ) চেয়ে সব সময় ১ শতাংশ পয়েন্ট কম হারে সুদ আরোপ করবে বাংলাদেশ ব্যাংক। অর্থাৎ, ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান এ তহবিল থেকে ৩ শতাংশ হারে ঋণ নিয়ে তা গ্রাহকদের কাছে বিতরণ করবে ।

এক্ষেত্রে ৮ বছরের বেশি সময়ের জন্য ঋণের ক্ষেত্রে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো গ্রাহক পর্যায়ে সর্বোচ্চ ৩ শতাংশ সুদ যোগ করতে পারবে। ফলে এ তহবিল থেকে নেওয়া ঋণে গ্রাহক পর্যায়ে মোট সুদহার হবে সর্বোচ্চ ৬ শতাংশ।

তবে কৃষি কাজে ‘সৌর বিদ্যুত চালিত সেচ পাম্পের’ জন্য গ্রাহক পর্যায়ে সর্বোচ্চ ২ শতাংশ সুদে যোগ করতে পারবে ঋণদাতা প্রতিষ্ঠান। সেক্ষেত্রে সুদ হার দাঁড়াবে সর্বোচ্চ ৫ শতাংশ।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সার্কুলারে বলা হয়, এ তহিবল থেকে নেওয়া ঋণের বিপরীতে গ্রাহক পর্যায়ে -

>> ৫ বছরের কম সময়ের জন্য সুদ হার হবে সর্বোচ্চ ৫ শতাংশ

>> ৫ বছর বা ততোধিক, কিন্তু ৮ বছরের কম সময়ের জন্য সুদ হার হবে সর্বোচ্চ ৫ দশমিক ৫ শতাংশ

>> ৮ বছর বা ততোধিক সময়ের জন্য সুদ হার হবে সর্বোচ্চ ৬ শতাংশ।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক বলেছে, মেয়াদী এ ঋণের অর্থ দিয়ে প্রকল্পের পরামর্শক খরচ, মেরামত ও রক্ষণাবেক্ষণ সংক্রান্ত খরচ ও চলতি মূলধন খাতের খরচ এই পুনঃঅর্থায়ন সুবিধার আওতাভুক্ত হবে না। কোনো ঋণ খেলাপি এই তহবিলের সুবিধা নিতে পারবেন না।

সৌর বিদ্যুৎ, সৌরি বিদ্যুৎ চালিত সেচ ও পানি গরম করার প্রকল্প, বর্জ্য হতে কম্পোস্ট উৎপাদন, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, পেট বোতল রিসাইক্লিং, কাগজ রিসাইক্লিং, জৈব সার তৈরি, কারাখানার কর্মপরিবেশ উন্নয়নসহ এ রকম ৬৮টি খাতে এ তহবিল থেকে ঋণ নেওয়ার সুযোগ রয়েছে।

সব ঋণই পরিবেশবান্ধব খাতে যেতে হবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক