শাহজালালে সোনা গায়েব: ৪ রাজস্ব কর্মকর্তা সাময়িক বরখাস্ত

সোমবার তাদের বরখাস্ত করা হলেও মঙ্গলবার তা প্রকাশ পেয়েছে।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 6 Feb 2024, 11:44 AM
Updated : 6 Feb 2024, 11:44 AM

ঢাকার শাহজালাল বিমানবন্দরে গুদাম থেকে সাড়ে ৫৫ কেজি সোনা গায়েব হওয়ার ঘটনায় চার সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে ঢাকা কাস্টম হাউস।

সোমবার তাদের বরখাস্ত করা হলেও মঙ্গলবার তা প্রকাশ পেয়েছে। বরখাস্তরা হলেন- শহিদুল ইসলাম, সাইদুল ইসলাম সাহেদ, আকরাম শেখ ও মাসুম রানা।

এ চারজনের বিরুদ্ধে গুদামে দাযিত্ব পালনকালে ‘লক অ্যান্ড কি’ নিয়ন্ত্রণ না করা, নিরাপত্তা প্রতিবেদন তৈরি না করা, সহকর্মীকে মালামাল বুঝিয়ে না দেওয়া, মূল্যবান পণ্য নির্দিষ্ট জায়গায় ও বাংলাদেশ ব্যাংকে জমা না রাখা, তথ্য গোপন রাখাসহ দায়িত্ব পালনে চরম অবেহেলার অভিযোগ আনা হয়েছে।

সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা ২০১৮ বিধি-২ (খ) অনুযায়ী অসদাচরণ হিসাবে এবং বিধি-৩ এর উপবিধি (খ) অনুযায়ী শাস্তিযোগ্য অপরাধ উল্লেখ করে ২০১৮ বিধি- ১২(১) অনুযায়ী সাময়িক বরখাস্তের আদেশ দিয়েছেন কাস্টম কমিশনার একেএম নুরুল হুদা আজাদ।

সম্প্রতি বিমানবন্দর লস্ট অ্যান্ড ফাউন্ডস শাখা সংলগ্ন কাস্টমস ট্রানজিট গোডাউনের অটোমেশনের কাজ শুরু হয়। এরইমধ্যে ওই গুদাম থেকে সাড়ে ৫৫ কেজি সোনা গায়েবের ঘটনা সামনে আসে, যেসব উদ্ধার করা হয়েছিল ২০২০ থেকে ২০২৩ সালের মধ্যে।

এ ঘটনায় বিমানবন্দর থানায় একটি চুরি মামলা হলে কাস্টমসের আটজনকে থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। পরে গোয়েন্দা পুলিশ তদন্তের দায়িত্ব পেলে এই আটজনকে নিয়ে তারা জিজ্ঞাসাবাদ করে।

ঢাকা মহানগর পুলিশের উপ কমিশনার (গোয়েন্দা-উত্তরা) আকরামুল হোসেন মঙ্গলবার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, তারা তদন্ত করছেন। এখন পর্যন্ত সোনা চুরির সঙ্গে কারও সংশ্লিষ্টতা পাওয়া যায়নি। কাউকে গ্রেপ্তারও করা হয়নি।

“যাকে প্রয়োজন মনে করা হচ্ছে, তাকেই জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। সেই সাথে অন্যান্য তথ্য এবং আলামত সংগ্রহের চেষ্টা চলছে।” 

(প্রতিবেদনটি প্রথম ফেইসবুকে প্রকাশিত হয়েছিল ১২ সেপ্টেম্বর ২০২৩ তারিখে: ফেইসবুক লিংক