‘প্রকৃত অভিভাবক’ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের মৃত্যুতে শেখ হাসিনার শোক

এক শোকবার্তায় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ কেবল কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোর আড়াই বিলিয়ন মানুষের বন্ধনের ভিত্তি ছিলেন না, তিনি ছিলেন করুণা, মর্যাদা, প্রজ্ঞা আর সেবার মূর্ত প্রতীক।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 9 Sept 2022, 06:40 AM
Updated : 9 Sept 2022, 06:40 AM

ব্রিটেনের ইতিহাসে সবচেয়ে দীর্ঘ সময় সিংহাসনে অসীন রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ব্রিটিশ প্রধানন্ত্রী লিজ ট্রাসের উদ্দেশে লেখা এক শোকবার্তায় তিনি বলেছেন, রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ কেবল কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলোর আড়াই বিলিয়ন মানুষের বন্ধনের ভিত্তি আর শক্তিই ছিলেন না, তিনি ছিলেন করুণা, মর্যাদা, প্রজ্ঞা আর সেবার মূর্ত প্রতীক।

“মহামান্য রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের আকস্মিক মৃত্যুতে আমি আপনার মাধ্যমে বাংলাদেশ সরকার এবং জনগণের পক্ষ থেকে এবং আমার পক্ষ থেকে গভীর শোক এবং যুক্তরাজ্যের জনগণের উদ্দেশ্যে আন্তরিক সমবেদনা জানাই।”

রানির বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “রাজপরিবারের সকল সদস্য এবং যুক্তরাজ্যের শোকাহত জনগণের সঙ্গে আমরাও সমব্যথী।”

সত্তর বছর ধরে যুক্তরাজ্য শাসন করে আসা রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ বৃহস্পতিবার স্কটল্যান্ডের বালমোরাল প্রাসাদে মারা যান। তার বয়স হয়েছিল ৯৬ বছর।

প্রধানমন্ত্রী লিখেছেন, সমকালিন বিশ্ব ইতিহাসের একজন কিংবদন্তি এবং সবচেয়ে দীর্ঘ সময় ব্রিটিশ সিংহাসনের অধিষ্টাত্রী হিসেবে রানি এলিজাবেথ কর্তব্য, সেবা ও ত্যাগের অনন্য নজির গড়ে গেছেন এবং বিশ্বজুড়ে অগণিত প্রজার জন্য আন্তরিকতার এক অতুলনীয় ঐতিহ্য রেখে গেছেন।

শেখ হাসিনা বলেছেন, রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ বাংলাদেশের মানুষের জন্য সাহস, দৃঢ়তা আর অনুপ্রেরণার এক অসাধারণ উত্স হয়ে থাকবেন; বাংলাদেশে তার দুই দফা রাজকীয় সফরের কথা এ দেশের মানুষ শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করবে।

“যুক্তরাজ্যে মহামান্য রানির সাথে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সাক্ষাত এবং অটোয়া ও কিংস্টনে কমনওয়েলথ সরকার প্রধানদের দুটি বৈঠকের স্মৃতি অমর হয়ে থাকবে।”

২০১৮ সালে লন্ডনে কমনওয়েলথ সরকার প্রধানদের বৈঠকে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের সঙ্গে নিজের সাক্ষাতের কথাও চিঠিতে স্মরণ করেছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী।

“স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে বাংলাদেশের জনগণকে অভিনন্দন জানিয়ে তিনি আবেগমাখা বার্তা পাঠিয়েছিলেন, লিখেছিলেন বন্ধুত্ব আর ভালোবাসাই আমাদের বন্ধন গড়ে দিয়েছে, যা আমাদের অংশীদারিত্বের ভিত্তি, সেটা পঞ্চাশ বছর আগে যেমন ছিল, এখনও ততটাই গুরুত্বপূর্ণ।”

রানির ওই বার্তা দুটি কমনওয়েলথ দেশের বন্ধনকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাবে- এই প্রত্যাশা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, “তার দুঃখজনক প্রয়াণে বাংলাদেশের মানুষ এবং ব্যক্তিগতভাবে আমি শুধু একজন বিশ্বস্ত বন্ধুকেই হারালাম না, একজন প্রকৃত অভিভাবকও হারালাম।”

রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের জীবনাবসানের সঙ্গে সঙ্গে যুক্তরাজ্যের নতুন রাজা হয়েছেন তার বড় ছেলে চার্লস।

পাশাপাশি তিনি কমনওয়েলথেরও প্রধান হবেন। ৫৬টি স্বাধীন রাষ্ট্র এবং ২৪০ কোটি মানুষের সংগঠন কমনওয়েলথ। তারমধ্যে যুক্তরাজ্যসহ ১৫টি দেশের রাষ্ট্রপ্রধান হবেন চার্লস।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক