চিরকুটে যা লিখে গেছেন তরুণ চিকিৎসক

তেজগাঁওয়ের নাখালপাড়ায় এক বান্ধবীর সাথে থাকতেন তিনি।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 7 Feb 2024, 03:08 AM
Updated : 7 Feb 2024, 03:08 AM

তরুণ চিকিৎসক সুস্মিতা সাহা ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যা করেছেন জানিয়ে পুলিশ বলেছে, তার ঘরে একটি চিরকুট পাওয়া গেছে, সেখানে মৃত্যুর আগে তিনি একজনকে দেখার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন। 

২৬ বছর বয়সী সুস্মিতাকে সোমবার রাতে নাখালপাড়ার একটি বাসা থেকে অসুস্থ অবস্থায় স্থানীয় একটি হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

২০২১ সালে মিরপুর ডেন্টাল কলেজ থেকে পাস করা সুস্মিতা একটি প্রাইভেট ক্লিনিকে বসতেন। তেজগাঁওয়ের নাখালপাড়ায় এক বান্ধবীর সাথে থাকতেন। তার গ্রামের বাড়ি জামালপুরে।

শিল্পাঞ্চল থানার ওসি মাযহারুল ইসলাম বলেন, “তার কক্ষে হাতে লেখা একটি নোট পাওয়া গেছে। সেখানে কয়েকটি ওষুধের নামের পর লেখা ছিল: ‘একবার আমার মুখটা দেখো। আমি একবার তোমাকে দেখতে চাই। ওষুধের রিঅ্যাকশন শুরু করে দিয়েছে। তোমার সুখ, তোমার পাশে অন্য কাউকে দেখে বাঁচা আমার সম্ভব না। কোথাও আমাকে পেলে অপরিচিত হয়ে এড়িয়ে যেতে। সুখী হও’।”

ওসি জানান, একজন মুসলিম ছেলের সাথে ওই চিকিৎসকের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। পরে তাদের মধ্যে বিচ্ছেদ হয়। ছেলেটি বিয়েও করেছেন।

“ধারণা করা হচ্ছে, ওই ছেলেকে উদ্দেশ্য করেই লেখা হয়েছে এই চিরকুট। আর তার কারণেই সুস্মিতা অতিরিক্ত ঘুমের ওষুধ খান। এ ব্যাপারে তদন্ত করা হবে।”

(প্রতিবেদনটি প্রথম ফেইসবুকে প্রকাশিত হয়েছিল ১২ সেপ্টেম্বর ২০২৩ তারিখে: ফেইসবুক লিংক)