জাবিতে ধর্ষণ: রিমান্ড শেষে কারাগারে ৪ আসামি

বাকি দুই আসামি বুধবার রাতে র‌্যাবের হাতে ধরা পড়েছে।

আদালত প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 8 Feb 2024, 04:55 PM
Updated : 8 Feb 2024, 04:55 PM

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে স্বামীকে আবাসিক হলে আটকে রেখে স্ত্রীকে দলবেঁধে ধর্ষণের মামলায় তিন দিনের রিমান্ড শেষে চার আসামিকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার তাদের আদালতে হাজির করে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা আশুলিয়ার থানার পরিদর্শক মিজানুর রহমান। শুনানি শেষে আসামিদের কারাগারে আদেশ দেন ঢাকার জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম ফারহানা ইয়াসমিন।

কারাগারে যাওয়ারা হলেন-মোস্তাফিজুর রহমান, সাব্বির হাসান সাগর, সাগর সিদ্দিক ও হাসানুজ্জামান।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আনোয়ারুল কবীর বাবুল বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “আসামি মোস্তাফিজুর রহমান ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে পুলিশের কাছে রাজি হওয়ার কথা জানালেও আদালতে এসে সিদ্ধান্ত পাল্টে ফেলেন। স্বাকারোক্তি দেবে কি না তা ভাবার জন্য আইনে নির্ধারিত সময় দেন এ আদালতের অপর জ্যেষ্ঠ বিচারক মুজাহিদুল ইসলাম। কিন্তু মোস্তাফিজুর স্বীকারোক্তি দেননি।”

গত শনিবার রাতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে স্বামীকে মীর মশাররফ হোসেন হলে আটকে রেখে এক গৃহবধূকে দলবেঁধে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে ছাত্রলীগের নেতা মোস্তাফিজুর এবং তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে।

ওই ঘটনায় ভুক্তভোগীর স্বামী ছয়জনকে আসামি করে আশুলিয়া থানায় ‘নারী ও শিশু নির্যাতন দমন’ আইনে মামলা করেন। বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস।

মামলার প্রধান আসামি মোস্তাফিজসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করার পর রোববার জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিন দিনের হেফাজতে পায় পুলিশ। বুধবার রাতে বাকি দুই আসামি মামুন ও মুরাদকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।

Also Read: ধর্ষণ: জাহাঙ্গীরনগরের চার শিক্ষার্থী ৩ দিনের রিমান্ডে

Also Read: জাহাঙ্গীরনগরে ধর্ষণ: ঘটনার যে বিবরণ দিল র‌্যাব