প্রত্যাবাসন: এসওপি চূড়ান্তের আলোচনায় বাংলাদেশ-ভারত

সোমবার ঢাকায় ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে তৃতীয় বাংলাদেশ-ভারত কনস্যুলার ডায়লগে অংশ নেন দুই দেশের প্রতিনিধি দল।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 25 July 2022, 06:50 PM
Updated : 25 July 2022, 06:50 PM

আটক নাগরিকদের প্রত্যাবাসনে স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিউর (এসওপি) চূড়ান্ত করতে কাজ করছে বাংলাদেশ ও ভারত।

সোমবার ঢাকায় তৃতীয় ভারত-বাংলাদেশ কনস্যুলার ডায়লগে এসওপি চূড়ান্ত করার এ আলোচনা হয় বলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও ভারতের হাই কমিশনের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

আলোচনায় আটক জেলেদের দ্রুত মুক্তির প্রক্রিয়াও অন্তর্ভুক্ত ছিল বলে উল্লেখ করা হয় বিজ্ঞপ্তিতে।

ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে আয়োজিত এ সংলাপে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব (পূর্ব) মাশফি বিনতে শামস বাংলাদেশ প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন। ভারতীয় প্রতিনিধিদলের নেতৃত্বে ছিলেন দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের (কনস্যুলার, পাসপোর্ট, ভিসা অ্যান্ড ওভারসিজ ইন্ডিয়ান অ্যাফেয়ার্স) সচিব ড. আউসফ সাঈদ।

সংলাপের বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, নাগরিকদের জন্য ভারতীয় ভিসা প্রাপ্তি সহজ করার ওপর গুরুত্ব দিয়েছে বাংলাদেশ। বেশি সময় ভারতে অবস্থানের ক্ষেত্রে জরিমানায় বৈষম্যের বিষয়টি মিটিয়ে নিতে ভারতের প্রতি আহ্বানও জানানো হয়েছে।

ভারতের হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে ইচ্ছুক বাংলাদেশিদের নিবন্ধন প্রক্রিয়া সহজ করার আহ্বানও জানিয়েছে বাংলাদেশ। একইসঙ্গে সব বন্দর দিয়ে বাংলাদেশিদের যাতায়াত সহজ করার অনুরোধও জানানো হয়েছে।

হাই কমিশনের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বৈঠকে কনস্যুলার ইস্যুতে সমন্বয় ও সহযোগিতা জোরদার করার জন্য দুই পক্ষই কার্যপ্রণালী নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছে।

“পর্যটক, শিক্ষার্থী এবং ব্যবসায়িক ভিসা সম্পর্কিত রিভাইজড ট্রাভেল অ্যারেঞ্জমেন্টস (২০১৮) এর অধীনে নীতিমালার আরও নিবিড় বাস্তবায়ন, ভিসা পদ্ধতি এবং প্রবেশ ও প্রস্থানের নিয়মাবলী আরও উদার করার মাধ্যমে ভ্রমণকে আরও সহজ করে তোলার বিষয়ে উভয় পক্ষ সম্মতি জানায়।”

হাই কমিশন বলছে, “সন্ত্রাসবাদ, আন্তঃসীমান্ত অপরাধ প্রতিরোধ এবং পারস্পরিক আইনি সহায়তা বাড়াতে আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলোর মধ্যে ঘনিষ্ঠ সহযোগিতাকে দুই পক্ষই স্বাগত জানিয়েছে। নাগরিককেন্দ্রিক কনস্যুলার কার্যক্রমের ব্যাপারে কাজ চালিয়ে যাওয়ার জন্যও উভয় পক্ষ প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করেছে।”

ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে কনস্যুলার, ভিসা এবং পারস্পরিক আইনি সহায়তা সহযোগিতার বিষয়ে আলোচনা ও উন্নতির মাধ্যমে মানুষে মানুষে বন্ধন আরও শক্তিশালী করার উদ্দেশ্যে ২০১৭ সালে এই কনস্যুলার ডায়লগ কার্যক্রম প্রতিষ্ঠিত হয়।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক