বিজেপির প্রবীণ নেতা আদভানিকে ‘ভারত রত্ন’ দেওয়া হচ্ছে

আদভানির ‘রামরথ’ যাত্রার প্রভাবে ভারতের হিন্দিভাষী অঞ্চলগুলোতে বিজেপির জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছিল।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 3 Feb 2024, 08:52 AM
Updated : 3 Feb 2024, 08:52 AM

ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির প্রবীণ নেতা লাল কৃষ্ণ আদভানিকে দেশটির সর্বোচ্চ নাগরিক সম্মান ‘ভারত রত্ন’ দেওয়া হচ্ছে।

শনিবার সকালে এক্স প্ল্যাটফর্মে করা এক পোস্টে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এ কথা ঘোষণা করেন।

ঘোষণায় এটিকে তার জন্য একটি ‘আবেগের মূহুর্ত’ মন্তব্য করে আদভানিকে এ সময়ের সবচেয়ে ‘সম্মানিত রাষ্ট্রনায়ক’ বলে উল্লেখ করেছেন মোদী, জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম।

মোদী বলেছেন, “শ্রী এল কে আদভানিজিে কে ভারত রত্ন দেওয়া হচ্ছে, এটি জানাতে পেরে আমি অত্যন্ত খুশি। এই সম্মান পাওয়ায় আমি তার সঙ্গে কথা বলে তাকে অভিনন্দন জানিয়েছি।”

অটল বিহারী বাজপেয়ী ভারতের প্রধানমন্ত্রী থাকাকালে আদভনি তার সরকারের উপপ্রধানমন্ত্রী ছিলেন। ১৯৭০ থেকে ২০১৯ পর্যন্ত মধ্যবর্তী সময়ে তিনি ভারতের পার্লামেন্টের উভয় কক্ষের সদস্য ছিলেন।

মোদী বলেছেন, “জাতির সেবায় তৃণমূল পর্যায় থেকে কাজ শুরু করে আমাদের উপপ্রধানমন্ত্রীও হয়েছিলেন তিনি। সংসদে সবসময় তিনি সমৃদ্ধ, অন্তর্দৃষ্টিতে পূর্ণ ভাষণ দিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।”

‘অদম্য’ এই নেতা ভারত রত্ন পাওয়ায় তিনি খুব আনন্দিত বলে জানান মোদী।

অযোধ্যার বাবরি মসজিদ ভাঙার ঘটনায় আদভানি অন্যতম অভিযুক্ত ছিলেন। ৩২ বছর আগের এ ঘটনায় হওয়া মামলায় তাকে ও অন্যান্য অভিযুক্তকে ২০২০ সালে বেকসুর খালাস ঘোষণা করে আদালত। ওই ঘটনা কোনো ষড়যন্ত্র বা পূর্ব পরিকল্পনার ফল ছিল না বলে মত আদালতের।

আদভানির ‘রামরথ’ যাত্রার প্রভাবে ভারতের হিন্দিভাষী অঞ্চলগুলোতে বিজেপির উত্থান শুরু হয়েছিল।

১৯৮৬ সাল থেকে ২০০৫ সালের মধ্যে তিনবার ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) সভাপতির দায়িত্বপালন করেছেন আদভানি। তার বয়স এখন ৯৭ বছর। বাবরি মসজিদের জায়গায় নির্মিত রাম মন্দিরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অসুস্থতার কারণে যোগ দিতে পারেননি তিনি।