২০২০ নির্বাচন মামলায় নিম্ন আদালতের রায় স্থগিত চান ট্রাম্প

সাবেক এই মার্কিন প্রেসিডেন্ট দাবি করে আসছেন, প্রেসিডেন্টের দায়িত্বে থাকাকালে তার নেওয়া পদক্ষেপের জন্য তাকে বিচারের মুখোমুখি করা যেতে পারে না।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 13 Feb 2024, 04:16 PM
Updated : 13 Feb 2024, 04:16 PM

২০২০ সালে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফল উল্টে দেওয়ার ষড়যন্ত্র মামলায় নিম্ন আদালতের রায় স্থগিত চেয়ে সুপ্রিম কোর্টের শরণাপন্ন হয়েছেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প।

নিম্ন আদালত রায়ে বলেছে, প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে কৃত অপকর্মের জন্য ট্রাম্প দায়মুক্তি পাবেন না।

ট্রাম্প সোমবার সুপ্রিম কোর্টে নিম্ন আদালতের এই রায় স্থগিত চেয়েছেন। ট্রাম্প দাবি করে আসছেন, প্রেসিডেন্টের দায়িত্বে থাকাকালে তার নেওয়া পদক্ষেপের জন্য তাকে বিচারের মুখোমুখি করা যেতে পারে না।

তবে ট্রাম্পের এ দাবির সঙ্গে ভিন্নমত পোষণ করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের নিম্ন আদালতের তিন বিচারক। তারা বলেন, অন্য যে কোনও নাগরিকের মতোই তার বিচার করা যাবে।

ওদিকে, ট্রাম্পের আইনজীবীরা বলেছেন, আগামী নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের সম্ভাব্য প্রার্থী ডনাল্ড ট্রাম্পকে নির্বাচনী প্রচারের এই সময়ে বিচার করা উচিত হবে না।

সুপ্রিম কোর্টের আবেদনে ট্রাম্পের অ্যাটর্নিরা লিখেছেন, “যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের এই সময়ে সাবেক এই প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে মাসের পর মাস ধরে ফৌজদারি বিচার চাললে তা প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের বিরুদ্ধে তার (ট্রাম্প) নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণার সক্ষমতা মারাত্মকভাবে ব্যাহত করবে।”

এখন ট্রাম্পকে আপিল করতে দেওয়ার জন্য নিম্ন আদালতের আদেশ স্থগিত রাখা হবে কি না, সে বিষয়ে সুপ্রিম কোর্ট সিদ্ধান্ত নেবে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি ক্ষমতায় থাকার সময় ২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফল পাল্টে দেওয়ার চক্রান্ত করেছিলেন। নির্বাচনে হারের পরও তিনি ক্ষমতা আঁকড়ে থাকতে চেয়েছিলেন।

২০২৪ সালের নভেম্বরে অনুষ্ঠেয় যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান পার্টির মনোনয়ন পাওয়ার ক্ষেত্রে অনেকটাই এগিয়ে থাকা ট্রাম্প আরও তিনটি মামলায় বিচারের মুখে আছেন।

নির্বাচন পর্যন্ত ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ঝুলে থাকা ফৌজদারি মামলার বিচারে দেরি করার জন্য চেষ্টা করে আসছেন সাবেক এই প্রেসিডেন্টের আইনজীবীরা।

রক্ষণশীল সংখ্যাগরিষ্ঠ যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্ট এখন ট্রাম্পের পক্ষে সিদ্ধান্ত দিলে তার বিরুদ্ধে ২০২০ সালের নির্বাচন সংক্রান্ত ফৌজদারি মামলা নিষ্পত্তিতে দীর্ঘ বিলম্ব হবে। সেক্ষেত্রে পার হয়ে যেতে পারে নভেম্বরের নির্বাচন।

আর যদি সুপ্রিম কোর্ট ট্রাম্পের পক্ষে রায় না দেয়, তাহলে তার কেন্দ্রীয় বিচারকাজ হতে পারে এই বসন্তেই।