ইরানে রেভল্যুশনারি গার্ডের সদরদপ্তরে হামলায় নিহত ২৭

শিয়া মুসলমান অধ্যুষিত ইরানে আদিবাসী সংখ্যালঘু বালুচ জাতিগোষ্ঠীর আরও বেশি অধিকার এবং আরও ভালো জীবনযাত্রার দাবি জানিয়েছে জাইশ আল-আদল।

রয়টার্স
Published : 4 April 2024, 01:47 PM
Updated : 4 April 2024, 01:47 PM

ইরানের দক্ষিণপূর্বের সিস্তান-বেলুচিস্তান প্রদেশে দেশটির অভিজাত রেভল্যুশনারি গার্ডের সদরদপ্তরে রাতভর জঙ্গিদের হামলায় অন্তত ১১ রেভল্যুশনারি গার্ড এবং ১৬ জঙ্গি নিহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে এখবর জানানো হয়।

বলা হয়, শাবাহার এবং রাস্ক শহরে বুধবার রাতভর জঙ্গি সংগঠন জাইশ আল-আদল এর সঙ্গে নিরাপত্তা বাহিনীর লড়াই হয়।

উপ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মাজিদ মীরআহমাদি টেলিভিশনে বলেন, “সন্ত্রাসীরা শাবাহার ও রাস্ক শহরে রেভল্যুশনারি গার্ডের সদরদপ্তর দখলের নেওয়ার লক্ষ্যে এ হামলা চালিয়েছিল। যাতে তারা সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে।”

লড়াইয়ে আরও ১০ রেভল্যুশনারি গার্ড আহত হয়েছেন।

শিয়া মুসলমান অধ্যুষিত ইরানে আদিবাসী সংখ্যালঘু বালুচ জাতিগোষ্ঠীর আরও বেশি অধিকার এবং আরও ভালো জীবনযাত্রার দাবি জানিয়েছে জাইশ আল-আদল।

সিস্তান-বেলুচিস্তান প্রদেশে গত কয়েক বছরে হওয়া বেশ কয়েকটি হামলার দায় স্বীকার করেছে জাইশ আল-আদল।

আফগানিস্তান এবং পাকিস্তান সীমান্তবর্তী এই প্রদেশটিতে দীর্ঘদিন ধরে ইরানের নিরাপত্তা বাহিনী এবং সুন্নি মুসলিম জঙ্গিদের মধ্যে নিয়মিত লড়াই হতে দেখা যায়। মাদক পাচারকারীদের সঙ্গেও নিরাপত্তা বাহিনীর নিয়মিত লড়াই হয়।

আফগানিস্তান থেকে পশ্চিমা বিশ্ব এবং অন্যান্য দেশে মাদক পাচারের মূল পথগুলোর একটি গেছে ইরানের উপর দিয়ে।

Also Read: পাকিস্তানের ‘জঙ্গি ঘাঁটিতে’ ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র হামলা

Also Read: এবার ইরানে পাল্টা হামলা পাকিস্তানের

এর আগে গত ডিসেম্বরে জাইশ আল-আদল রাস্ক শহরে একটি পুলিশ স্টেশনে হামলা চালিয়ে ১১ পুলিশ সদস্যকে হত্যা করে।

এ বছর জানুয়ারিতে ইরান জাইশ আল-আদল এর ঘাঁটিতে হামলা চালানোর কথা বলে প্রতিবেশী পাকিস্তানের ভূখণ্ডে ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলা চালিয়েছিল। যার তীব্র নিন্দা জানিয়ে পাকিস্তানও বালুচ আদিবাসী ‘জঙ্গিদের ঘাঁটিতে’ হামলা চালানোর কথা বলে ইরানের ভূখণ্ডে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায়।