নির্বাচনে বিপুল জয় দাবি ইমরানের, জাতির নজিরবিহীন ‘পাল্টা লড়াইয়ের’ প্রশংসা

কারাবন্দি ইমরান খানের অফিসিয়াল এক্স অ্যাকাউন্টে পোস্ট করা হয় তার এআই দিয়ে তৈরি জয়ের ভাষণ।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 9 Feb 2024, 07:25 PM
Updated : 9 Feb 2024, 07:25 PM

পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচনে কারান্তরীণ সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তার দল পিটিআই এর ব্যাপক বিজয় দাবি করেছেন। জাতির নজিরবিহীন পাল্টা লড়াই এবছরের নির্বাচনে এই বিপুল জয় এনে দিয়েছে বলে প্রশংসা করেছেন ইমরান।

ইমরান খানের অফিসিয়াল এক্স অ্যাকাউন্টে পোস্ট করা হয় তার এআই (কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা) দিয়ে তৈরি বিজয়ী ভাষণ। এতে তিনি বলেছেন, তার দলের সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা সবচেয়ে বেশি আসন পেয়েছে। পিটিআই সমর্থকদেরকে এই জয় উদযাপন করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

নির্বাচন কমিশন ঘোষিত ২৪১ টি আসনের ফলে ইমরানের স্বতন্ত্র প্রার্থীরা নওয়াজ শরিফের পিএমএল-এন এর চেয়ে বড় ব্যবধানে স্পষ্ট এগিয়ে রয়েছে। তবু নির্বাচনে জয় দাবি করে সরকার গঠনের চেষ্টা শুরু করেছেন নওয়াজ।

আল-জাজিরার দেওয়া সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী, খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা ৯৯টি আসনে জয় পেয়েছে। আর নওয়াজ শরিফের নেতৃত্বাধীন পাকিস্তান মুসলিম লীগের (পিএমএল-এন) প্রার্থীরা পেয়েছে ৭১ টি আসন।

ইমরান খানের দল পিটিআই এর মুখপাত্র রউফ হাসান বলেছেন, “এখন গণতন্ত্রকে বিকশিত হতে দেওয়ার সময়।”

পিটিআই সমর্থিত স্বতন্ত্ররা এগিয়ে থাকায় হাসান বলেন, “যে রাজনৈতিক দল ভোট পায় সে দলেরই শাসন করার অধিকার থাকে। আর সেই অধিকার কোনও প্রতিবন্ধকতা ছাড়াই দেওয়া হয়েছে। আর এখানে হস্তক্ষেপ বন্ধে আমরা নিয়ম-বিধি মেনে যা করা যায় সেটিই করব।”

এক সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচনের ফল নিয়ে তিনি বলেন, “প্রভাবশালীদের অবশ্যই জনগণের পছন্দকে সম্মান করতে শিখতে হবে।”

এই সিদ্ধান্তকে বানচাল করতে গেলে মারাত্মক পরিণতি ভোগ করতে হবে বলেও সতর্ক করে দেন তিনি।

ওদিকে, ইমরান খান এক্সের পোস্টে তার বার্তায় নির্বাচনে জয়ের জন্য তার সমর্থকদের অভিনন্দন জানিয়েছেন। তিনি বলেন, তার সমর্থকদের ভোটের কারণেই প্রতিপক্ষ পিএমএল-এন কে ক্ষমতায় বসানোর পরিকল্পনা ব্যর্থ হয়েছে।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের সমালোচনা করে ইমরান খান বলেন, ৩১ টি আসন পেছনে পড়ে থেকেও তিনি নির্বাচনে জয়ের ভাষণ দিয়েছেন। ভোট কারচুপির অভিযোগ করে ইমরান বলেন, চুরি শুরুর আগে পিটিআই-সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা জাতীয় পরিষদে ১৫০ আসনে জয় পাচ্ছিল।

নির্বাচন কমিশন থেকে এখনও পাকিস্তানের চূড়ান্ত নির্বাচনী ফল ঘোষণা হয়নি। ভোট এখনও গণনা চলছে। তার মধ্যেই পাল্টাপাল্টি এই জয় দাবি করেছেন ইমরান খান এবং তার প্রতিপক্ষ নওয়াজ শরিফ দুইজনই।

পিএমএল-এন একক দল হিসেবে সরকার গঠনের অবস্থানে নেই সেকথা মেনে নিলেও নওয়াজ তার সাবেক জোট শরিকদের একসঙ্গে বসে ঐক্য সরকার গঠনের আহ্বান জানিয়েছেন।

ঐক্য সরকার গঠনের ইঙ্গিত দিয়েও নওয়াজ সব রাজনৈতিক দলকে এক হয়ে পাকিস্তানকে সংকট থেকে টেনে বের করে আনার ডাক দিয়েছেন।

তবে পাকিস্তানের জিও নিউজ জানায়, ইমরানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) শুক্রবার বলেছে, তারা কেন্দ্রে সরকার গঠনের অবস্থানে আছে। আর সেকারণেই তারা পিপিপি এবং পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন) এর সঙ্গে জোট গড়বে না।

“এই দুই দলের কোনওটির সঙ্গেই যোগাযোগ করা হচ্ছে না” বলে পিটিআই জানিয়েছে। তারা কেন্দ্র এবং পাঞ্জাবে সরকার গড়বে বলে দাবি করছে।

পিটিআই এর ব্যারিস্টার গহর বলেছেন, খাইবার পাখতুনখাওয়ায় পিটিআই পরিষ্কার জয় পেয়েছে। সেখানেও তারা সরকার গড়বে। পিটিআই পার্লামেন্টে থাকবে এবং ভূমিকা পালন করবে বলে জানান তিনি।

গহর আরও বলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থীরা পিটিআই এর। তারা দলের নির্দেশাবলীর বাইরে গিয়ে অন্য কোনও দলে যোগ দেবে না।