‘জিটিএ ৬ গেইমপ্লে’র ৯০টি ভিডিও ঘুরছে অনলাইনে!

এইসব ফুটেজ কতো পুরোনো, সেটি এখনও পরিষ্কার নয়। তবে, এদের কয়েকটি ‘আরটিএক্স ৩০৬০ টিআই’ ও ‘আরটিএক্স ৩০৮০’ কার্ডে চলার সম্ভাবনা রয়েছে।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 18 Sept 2022, 02:02 PM
Updated : 18 Sept 2022, 02:02 PM

অনলাইনে ফাঁস হয়ে গেছে গেইম প্রকাশক রকস্টার গেইমসের পরবর্তী ফ্রাঞ্চাইজ ‘গ্র্যান্ড থেফট অটো ৬’-এর খেলার ভিডিও ফুটেজ।

গেইমিংবিষয়ক সাইট পিসি গেইমারের প্রতিবেদন বলছে, এক ব্যবহারকারী ‘জিটিএ ৬’ গেইমের ৯০টি ভিডিও থাকা একটি তিন জিবি’র ফাইল পোস্ট করেছেন অনলাইন সাইট ‘জিটিএ ফোরামস’-এ।

ফুটেজগুলো কীভাবে সংগৃহিত হয়েছে, তা এখনও পরিষ্কার নয়। তবে, গেল সপ্তাহে উবার হ্যাকিংয়ের দাবিদার ‘টিপটউবারহ্যাকার’ বলছেন, ‘জিটিএ ৫’ এবং ‘জিটিএ ৬’-এর সোর্স কোড, গেইমের অ্যাসেট ও টেস্টিং বিল্ডসহ শীঘ্রই আরও ডেটা ফাঁস করতে পারেন তিনি বা তারা।

গেইমটি নিয়ে আগে প্রকাশিত বিভিন্ন প্রতিবেদনে উঠে এসেছে গেইমটিতে একটি নারী চরিত্রের দেখা মিলবে। ফাঁস হওয়া কয়েকটি ক্লিপে এর সত্যতা মিলেছে। এ বছরের শুরুতেই মার্কিন প্রকাশনা ব্লুমবার্গ জানিয়েছিল জিটিএ ৬ গেইমে মার্কিন অপরাধী যুগল বনি ও ক্লাইডের ছায়া অবলম্বনে যোগ হতে পারে দুই প্রধান নারী চরিত্র।

এই সব ফাঁস হওয়া ভিডিও এখন ছড়িয়ে পড়ছে ইউটিউব, টুইটার, রেডিটসহ বেশ কয়েকটি অনলাইন গেইমিং ফোরামে।

একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, একটি রেস্টুরেন্ট ডাকাতি করে সবাইকে জিম্মি করছে ‘লুসিয়া’ নামে এক নারী চরিত্র। এতে অনেক বর্ণনাসহ টেক্সট বক্স বা ‘প্লেসহোল্ডার টেক্সট’ আছে এবং দৃশ্যগুলোয় গেইম ইঞ্জিন কীভাবে অবজেক্ট শনাক্ত করে, সেটিও দেখতে পারছেন দর্শকরা।

আরেকটি ক্লিপ দেখাচ্ছে, একটি ‘ভাইস সিটি মেট্রো’ ট্রেনের ওপর রয়েছে গেইমটির মূল চরিত্র। বিভিন্ন প্রতিবেদনে আগেই উঠে এসেছে, ২০০২ সালের ‘জিটিএ: ভাইস সিটি’ গেইমের মতোই মায়ামি শহরের কাল্পনিক প্রেক্ষাপটে তৈরি হয়েছে গেইমটি।

আলাদা একটি ক্লিপে দেখানো ‘পুলসাইড আলাপচারিতার’ সঙ্গে মিল রয়েছে রকস্টারের ‘রেড ডেড রিডেম্পশন ২’ গেইমের ‘এনপিসি’ কথোপকথনের।

এইসব ফুটেজ কতো পুরোনো, সেটি এখনও পরিষ্কার নয়। তবে, এদের কয়েকটি ‘আরটিএক্স ৩০৬০ টিআই’ ও ‘আরটিএক্স ৩০৮০’ কার্ডে চলার সম্ভাবনা রয়েছে। এর মানে হচ্ছে, তাই এগুলোর ‘ডেভলপমেন্ট বিল্ড’ দুই বছরের চেয়ে পুরোনো হওয়ার কথা না – প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট ভার্জ।

অন্যান্য ক্লিপে দেখা যাচ্ছে নতুন এনপিসি কার্যক্রম, আপডেট করা ‘ইউআই’ এবং অ্যানিমেশন। এমনকি প্লেস্টেশনে জিটিএ ৬ গেইমের জন্য রকস্টারের নিজস্ব অভ্যন্তরীণ ‘ডিবাগ টুলের’ও দেখা মিলেছে এতে।

অনেকের কাছে এই সব ফাঁস হওয়া ক্লিপ ভুয়া মনে হতে পারে, তবে ক্লিপের সংখ্যা ও বিভিন্ন প্রমাণ বলছে অন্য কথা।

জিটিএ ৬ আসতে অন্তত দুই বছর সময় লাগবে বলে ইঙ্গিত মিললেও এই সব ফাঁস হওয়া ক্লিপে সম্ভবত গেইমের প্রাথমিক ‘ডেভলপমেন্ট বিল্ড’ ও পরীক্ষার কিছু দিকের দেখা মিলেছে। তবে, রকস্টারের গেইম ব্যপকভাবে ফাঁসের প্রথম ঘটনা নয় এটি।

‘ট্রাস্টেড রিভিউস’ নামে একটি সাইট ‘রেড ডেড রিডেম্পশন’ গেইমটি প্রকাশের আগেই এর বিভিন্ন তথ্য ফাঁসের অভিযোগে ২০১৮ সালে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে বাধ্য হয়। এর পাশাপাশি বিভিন্ন চ্যারিটিতে ১০ লাখ ডলারের বেশি অনুদান দিতে হয়েছিল সাইটটিকে।

এই ফাঁস হওয়া প্রসঙ্গে ভার্জ রকস্টারের মালিক কোম্পানি ‘টেক-টু’র মন্তব্য জানতে চাইলে তাৎক্ষণিক কোনো উত্তর মেলেনি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক