এআই ব্যবহারে ছবি তৈরির প্রযুক্তি উন্মুক্ত করলো দাল-ই

পুরস্কারজয়ী চিত্রকর্ম আর স্বল্প দৈর্ঘ্যের চলচিত্র নির্মাণে ভূমিকা রেখে সৃজনশীল শিল্প খাতে বিতর্কের জন্ম দিয়ে আলোচনায় আছে মিডজার্নি।

প্রযুক্তি ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 29 Sept 2022, 09:16 AM
Updated : 29 Sept 2022, 09:16 AM

লিখে দেওয়া নির্দেশনা থেকে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স বা এআই প্রযুক্তি ব্যবহার করে ডিজিটাল শিল্পকর্ম ‘আঁকার’ সেবা ‘দাল-ই’ এখন সবার জন্য উন্মুক্ত।

বুধবারেই সেবাটি সবার জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে ‘দাল-ই’র নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ওপেনএআই। অপেক্ষমানদের তালিকায় থাকা আগ্রহীদের এরই মধ্যে প্ল্যাটফর্মে প্রবেশাধিকার দিয়েছে কোম্পানিটি।

সবার জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়ার আগেই ‘দাল-ই’র ব্যবহারকারীর সংখ্যা ছিল ১৫ লাখের ঘরে, প্রতিদিন ২০ লাখের বেশি ছবি তৈরি করছিলেন তারা। আর এখন এক ব্লগ পোস্টে কোম্পানিটি জানিয়েছে, যে কেউ সেবাটিতে সাইন-আপ করতে পারবেন।

প্রযুক্তি খাতে এআই প্রযুক্তির একটি ব্যবহারিক দিক হলো কম্পিউটার সিস্টেম ব্যবহার করে বাস্তব পৃথিবীর বিপুল পরিমান ডেটা বিশ্লেষণ করে বিভিন্ন খুঁটিনাটি চিহ্নিত করার সক্ষমতা। প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট সিনেট বলছে, এর ফলে বিপ্লব এসেছে কম্পিউটিং খাতে; ছবি চিহ্নিত করা, স্প্যাম চিহ্নিত করা, অনলাইন প্রতারণা মোকাবেলা এবং স্বচালিত গাড়িতে কাজে আসছে হচ্ছে প্রযুক্তির আধুনিক প্রয়োগ।

এ খাতে সৃষ্টিশীলতা যোগ করছে ‘দাল-ই’র মতো প্ল্যাটফর্মগুলো। লিখিত নির্দেশনার ভিত্তিতে এআই যে ছবিগুলো তৈরি করছে, তা বিনোদনের যোগান দিচ্ছে তো বটেই, ক্ষেত্রবিশেষে চিন্তাশক্তিকেও উসকে দিচ্ছে বলে মন্তব্য করেছে সিনেট।

তবে, বাজারে এআইনির্ভর শিল্পকর্ম তৈরির একমাত্র প্ল্যাটফর্ম নয় ‘দাল-ই’; এরই মধ্যে জনপ্রিয়তা পেয়েছে স্টেবল ডিফিউশন ও মিডজার্নির মতো উদ্যোগ। পুরস্কারজয়ী চিত্রকর্ম আর স্বল্প দৈর্ঘ্যের চলচিত্র নির্মাণে ভূমিকা রেখে সৃজনশীল শিল্প খাতে বিতর্কের জন্ম দিয়ে আলোচনায় আছে মিডজার্নি।

অন্যান্য অ্যাপ ও ডিজিটাল সেবাতেও ‘দাল-ই’ সমন্বিত হতে পারে বলে জানিয়েছে সিনেট। ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো যেন এআইটি থেকে আসা ফলাফল নিজেদের সেবার সঙ্গে সমন্বিত করতে পারে সেজন্য নতুন প্রোগ্রামিং ইন্টারফেইস নির্মাণের কাজ শুরু হয়েছে বলে বুধবারেই জানিয়েছে ওপেনএআই।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক