হলান্ডের রেকর্ডের দিনে সিটি-লিভারপুলের ড্র

প্রিমিয়ার লিগের পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ দুই দলের রোমাঞ্চকর লড়াই শেষ হলো ১-১ গোলে।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 25 Nov 2023, 02:52 PM
Updated : 25 Nov 2023, 02:52 PM

লিভারপুলের বিপক্ষে নিজের প্রথম গোলে নতুন উচ্চতা স্পর্শ করলেন আর্লিং হলান্ড। গড়লেন প্রিমিয়ার লিগে দ্রুততম পঞ্চাশ গোলের রেকর্ড। তবে দাপুটে ফুটবল খেলা ম‍্যানচেস্টার সিটিকে রুখে দিল ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ দুই দলের রোমাঞ্চকর লড়াই শেষ হলো সমতায়।

ঘরের মাঠে শনিবার লিভারপুলের বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র করেছে পেপ গুয়ার্দিওলার দল। ২৭তম মিনিটে সিটিকে এগিয়ে নিয়েছিলেন হলান্ড। ৮০তম মিনিটে সমতা ফেরান লিভারপুলের ইংলিশ ডিফেন্ডার ট্রেন্ট অ‍্যালেকজান্ডার-আর্নল্ড।

একাদশ মিনিটে আলিসনের মারাত্মক ভুলে বিপদে পড়তে বসেছিল লিভারপুল। ব্রাজিলিয়ান গোলরক্ষক বল তুলে দিয়েছিলেন ফিল ফোডেনের পায়ে। কিন্তু ভার্জিল ফন ডাইকের প্রবল চ‍্যালেঞ্জের মুখে ঠিকমতো শট নিতে পারেননি ইংলিশ মিডফিল্ডার। তার দুর্বল শট যায় আলিসন বরাবর।

আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে দারুণ জমে ওঠা ম‍্যাচে ২০তম মিনিটে আবার একটুর জন‍্য বেঁচে যায় লিভারপুল। কার্টিস জোন্সের ব‍্যাক পাস বিপদ ডেকে আনছিল। তবে হলান্ডের আগেই বলের কাছে পৌঁছে যান আলিসন, তিনিই দলকে বিপদমুক্ত করেন।

সাত মিনিট পর শেষরক্ষা হয়নি লিভারপুলের। নাথান আকের কাছ থেকে বল পেয়ে ঠাণ্ডা মাথায় বাকিটা সারেন হলান্ড। দলকে এগিয়ে নেওয়ার সঙ্গে গড়েন দারুণ এক রেকর্ড।

ইংল‍্যান্ডের শীর্ষ লিগে এটি তার ৫০তম গোল, কেবল ৪৮ ম‍্যাচে। প্রিমিয়ার লিগে আগের দ্রুততম ৫০ গোলের রেকর্ড ছিল অ‍্যান্ডি কোলের, তার লেগেছিল ৬৫ ম‍্যাচ।

পিছিয়ে পড়ার পর কিছুক্ষণ দারুণ আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে লিভারপুল। কিন্তু ভাঙতে পারেনি এদেরসনের প্রবল প্রতিরোধ।

উল্টো ৪৪তম মিনিটে আরও পিছিয়ে যেতে বসেছিল লিভারপুল। হুলিয়ান আলভারেসের কাছ থেকে বিপজ্জনক জায়গায় বল পেয়ে যান ফোডেন। তার নিচু শট দারুণ দক্ষতায় কর্নারের বিনিময়ে ঠেকিয়ে দেন আলিসন।

৫৩তম মিনিটে আলভারেসের ব‍্যর্থতায় বাড়েনি ব‍্যবধান। বিপজ্জনক জায়গায় বল পেয়েও নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলায় বাঁ পায়ের শট লক্ষ‍্যে রাখতে পারেননি আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার। দুই মিনিট পর হলান্ডের ভলিও যায় ক্রসবারের ওপর দিয়ে।

৬৮তম মিনিটে আলভারেসের কর্নার থেকে লিভারপুলের জালে বল পাঠান রুবেন দিয়াস। কিন্তু বল নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার জন‍্য লাফ দেওয়া আলিসনকে সিটির মানুয়েল আকঞ্জি ধাক্কা দেওয়ায় মেলেনি গোল।

৭২তম মিনিটে এদেরসনের দুর্দান্ত সেভে ব‍্যবধান ধরে রাখে সিটি। মোহাম্মদ সালাহর কাছ থেকে বল পেয়ে কাছের পোস্ট ঘেঁষে বুলেট গতির শট নেন দারউইন নুনেস। তিনি কোন দিক শট নেবেন আগেই যেন অনুমান করতে পেরেছিলেন এদেরসন, দারুণ ডাইভে ব্রাজিলিয়ান গোলরক্ষক অক্ষত রাখেন জাল।

৭৯তম মিনিটে সিটির চমৎকার একটি আক্রমণ ব‍্যর্থ করে দিয়ে দলকে ম‍্যাচে রাখেন আলিসন। পরের মিনিটেই সময় ফেরায় লিভারপুল! সালাহর কাছ থেকে বল পেয়ে চমৎকার ফিনিশিংয়ে জাল খুঁজে নেন অ‍্যালেকজান্ডার-আর্নল্ড। ঝাঁপ দিলেও বলের নাগাল পাননি এদেরসন।

শেষ দিকে লিভারপুলের রক্ষণে প্রবল চাপ তৈরি করা সিটি অন্তিম সময়ে গোল প্রায় পেয়েই যাচ্ছিল। আলভারেসের কর্নারে হলান্ডের হেড বেরিয়ে যায় দূরের পোস্ট ঘেঁষে।

১৩ ম‍্যাচে ৯ জয় ও দ্বিতীয় ড্রয়ে ২৯ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষেই আছে সিটি। সমান ম‍্যাচে ২৮ পয়েন্ট নিয়ে দুই নম্বরে লিভারপুল।

দুই দলকেই টপকে যাওয়ার সুযোগ আছে আর্সেনালের। ১২ ম‍্যাচে ২৭ পয়েন্ট নিয়ে আপাতত তিন নম্বরে আছে তারা।