বয়সভিত্তিক সাঁতারে জুনাইনা-জাহিদুল সেরা

জাতীয় বয়সভিত্তিক সাঁতার ও ডাইভিং প্রতিযোগিতায় ব্যক্তিগত নৈপুণ্যে মেয়েদের মধ্যে সেরা হয়েছেন জুনাইনা আহমেদ। ছেলেদের মধ্যে সেরা জাহিদুল ইসলাম।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 Oct 2017, 04:03 PM
Updated : 24 Oct 2017, 04:03 PM

৪২টি স্বর্ণ ৪০টি রৌপ্য ও ৪২টি ব্রোঞ্জ মিলিয়ে ১২৪টি পদক নিয়ে দলীয় সেরা বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি)।

সৈয়দ নজরুল ইসলাম জাতীয় সুইমিং কমপ্লেক্সে মঙ্গলবার ৩২তম এই প্রতিযোগিতার শেষ দিনে গোপালগঞ্জ সুইমিং ক্লাবের হয়ে খেলা ইংল্যান্ড প্রবাসী জুনাইনা ৮০০ মিটার ফ্রিস্টাইল ও ১০০ মিটার বাটারফ্লাইয়ে রেকর্ড গড়েন।

অনূর্ধ্ব-১৭ বছর বয়সী বালিকা বিভাগের ৮০০ মিটার ফ্রিস্টাইলে ১০ মিনিট ২০ দশমিক ৩৫ সেকেন্ড সময় নিয়ে জুনাইনা ভেঙেছেন ২০১২ সালে নাজমা খাতুনের গড়া (১১ মিনিট ২০ দশমিক ১৫ সেকেন্ড) রেকর্ড।

১০০ মিটার বাটারফ্লাইয়ে ২০১২ সালেই নাজমার গড়া ১ মিনিট ১৩ দশমিক ৩৬ সেকেন্ড টাইমিংয়ের রেকর্ড জুনাইনা এবার নিজের করে নেন ১ মিনিট ১১ দশমিক ১৮ সেকেন্ডে সাঁতার শেষ করে। সব মিলিয়ে ১০টি স্বর্ণ জিতে প্রতিযোগিতা শেষ করা ১৪ বছর বয়সী এই সাঁতারু রেকর্ড গড়েছেন নয়টি।

অনূর্ধ্ব-২০ বছর বয়সী মেয়েদের ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইলে বিকেএসপির ড থৈ প্রু মারমা ৩১ দশমিক ৩৮ সেকেন্ড সময় নিয়ে ২০১৪ সালে সোনিয়া খাতুনের গড়া ৩১ দশমিক ৭৯ সেকেন্ডের রেকর্ড ভেঙেছেন। ২০০ মিটার ইনডিভিজুয়াল মেডলিতেও সোনিয়ার ২০১৫ সালে গড়া রেকর্ড (২ মিনিট ৫৮ দশমিক ৪০ সেকেন্ড) ভেঙেছেন ড থৈ প্রু মারমা (২ মিনিট ৫৪ দশমিক ৩৪ সেকেন্ড)।

অনূর্ধ্ব-১৪ বছর বয়সী বালক বিভাগের ২০০ মিটার বাটারফ্লাইয়ে রেকর্ড গড়েছেন মোহাম্মদ আরমান। ২ মিনিট ২৮ সেকেন্ড সময় নিয়ে ২০১৪ সালে নয়ন আলীর গড়া রেকর্ড (২ মিনিট ২৮ দশমিক ৩৯ সেকেন্ড) রেকর্ড নিজের করে নিয়েছেন বিকেএসপির এই সাঁতারু।

অনূর্ধ্ব-১৪ বছর বয়সী মেয়েদের ১০০ মিটার ফ্রিস্টাইলে বাংলাদেশ আনসারের মুক্তি খাতুন স্বর্ণ জিতেছেন রেকর্ড গড়ে। ২০১২ সালে পাপিয়া খাতুনের গড়া রেকর্ড (১ মিনিট ০৯ দশমিক ৪২ সেকেন্ড) তিনি ভেঙেছেন ১ মিনিট ০৯ দশমিক ৪১ সেকেন্ডে সাঁতার শেষ করে।

বয়সভিত্তিক সাঁতারে হওয়া ২১টি রেকর্ডের মধ্যে দুটি গড়লেও ছেলেদের বিভাগে সেরা হওয়া জাহিদুল জিতেছেন মোট আটটি স্বর্ণ। শেষ দিনেও অনূর্ধ্ব-২০ বছর বয়সীদের ৪০০ ও ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইল ও ২০০ মিটার ইনডিভিজুয়াল মেডলিতে সেরা হন বিকেএসপির এই সাঁতারু।

ভাইভিংয়ে এবার রেকর্ড হয়েছে তিনটি। ৫ মিটার প্ল্যাটফর্ম ডাইভিংয়ে বিকেএসপির পারভেজ মোশাররফ (২০৪ দশমিক ১৫) ভেঙেছেন ২০১৫ সালে গড়া নাসিম হোসেনের (১৯৮ দশমিক ৬০) রেকর্ড।

১ মিটার স্প্রিং বোর্ড ডাইভিংয়ে সাজ্জাদুল ইসলাম (২০৯ দশমিক ৮৫) ভেঙেছেন সাদি মোহাম্মদ মহসিনের (২০৬ দশমিক ০৪) রেকর্ড। ৩ মিটার স্প্রিং বোর্ডে সাজ্জাদুলই (২০৮ দশমিক ৯৫) নিজের করে নিয়েছেন নাসিম হোসেনের ২০১৫ সালে গড়া রেকর্ড (১৯৩ দশমিক ৭৫)।

২৮টি স্বর্ণ, ১৯টি রৌপ্য ও ২০টি ব্রোঞ্জ মিলিয়ে ৬৭টি পদক নিয়ে রানার্সআপ হয়েছে বাংলাদেশ আনসার। তৃতীয় হওয়া গোপালগঞ্জের জেতা ১১টি স্বর্ণের ১০টিই জুনাইনার জেতা।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক