শেষ মুহূর্তের গোলে বার্সার কষ্টের জয়

বেশিরভাগ সময় আধিপত্য দেখানো রেয়াল সোসিয়েদাদ শেষ সময়ে হেরে গেল।

স্পোর্টস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 Nov 2023, 10:08 PM
Updated : 4 Nov 2023, 10:08 PM

ক্লাসিকোয় হারের ধাক্কা সামলে ওঠার লড়াইয়ে রেয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে আক্রমণে ভুগল বার্সেলোনা। অনেকটা সময় জুড়ে তাদের ওপর ছড়ি ঘোরাল সোসিয়েদাদ। শেষ সময়ে অবশ্য বদলে গেল চিত্র। রোনালদ আরাউহোর গোলে নাটকীয় জয় পেল শাভি এর্নান্দেসের দল।

সোসিয়েদাদের মাঠে শনিবার রাতে লা লিগার ম্যাচটি ১-০ গোলে জিতেছে বার্সেলোনা। দ্বিতীয়ার্ধের যোগ করা সময়ে গোলটি করেছেন আরাউহো।

এক ম্যাচ পর লিগে জয়ের দেখা পেল শিরোপাধারীরা। গত রাউন্ডে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রেয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে তারা হেরেছিল ২-১ গোলে।

শুরুর কয়েক মিনিটে বার্সেলোনাকে কোণঠাসা করে রাখে সোসিয়েদাদ। প্রথম চার মিনিটে দুটি ভালো সুযোগ পায় তারা। প্রথমে আন্দ্রে বারেনেচেয়ার শট এক হাতে কর্নারের বিনিময়ে বাঁচান মার্ক-আন্ড্রে টের স্টেগেন। কাছ থেকে প্রতিপক্ষের আরেকজনের প্রচেষ্টা পা দিয়ে ফেরান জার্মান গোলরক্ষক।

প্রথমার্ধের শেষ সময়ে প্রতিপক্ষের এক ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে বক্সে পড়ে যান জোয়াও ফেলিক্স। পেনাল্টির আবেদন করে বার্সেলোনার খেলোয়াড়রা, তবে রেফারির সাড়া মেলেনি।

বিরতির আগে গোলের জন্য সোসিয়েদাদের যেখানে আট শটের চারটি লক্ষ্যে, বার্সেলোনার তিন শটের একটি লক্ষ্যে ছিল।

একাদশে ফিরে প্রথমার্ধে নিজের ছায়া হয়ে ছিলেন রবের্ত লেভানদোভস্কি। ৫৭তম মিনিটে পোলিশ স্ট্রাইকারকে তুলে পেদ্রিকে নামান বার্সেলোনা কোচ। একই সঙ্গে ফেরমিন লোপেসের জায়গায় নামানো হয় ফেররান তরেসকে।

এই অর্ধেও মাঝেমধ্যেই বার্সেলোনার রক্ষণে হানা দিতে থাকে সোসিয়েদাদ। ৭১তম মিনিটে বারেনেচেয়ার জোরাল শট ঝাঁপিয়ে ব্যর্থ করে দেন টের স্টেগেন।

পরে রাফিনিয়া, লামিনে ইয়ামালকে বদলি নামিয়েও গোলের দেখা পাচ্ছিল না বার্সেলোনা। নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে ওয়ান-অন-ওয়ানে গাভির প্রচেষ্টা ফিরিয়ে দেন স্বাগতিক গোলরক্ষক।

তিন মিনিট যোগ করা সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে আরাউহোর ওই গোল। ইলকাই গিনদোয়ানের ক্রসে বক্সে হেডে বল জালে পাঠান উরুগুয়ের এই ডিফেন্ডার। শুরুতে অফসাইডের বাঁশি বাজলেও ভিএআরের সাহায্যে গোল দেন রেফারি। উল্লাসে মাতে সফরকারীরা।

১২ ম্যাচে ৮ জয় ও ৩ ড্রয়ে ২৭ পয়েন্ট নিয়ে তিন নম্বরে উঠেছে বার্সেলোনা। ১১ ম্যাচে ২৮ পয়েন্ট নিয়ে রেয়াল মাদ্রিদ দুইয়ে আর ১২ ম্যাচে ৩১ পয়েন্ট নিয়ে জিরোনা শীর্ষে আছে।

১৯ পয়েন্ট নিয়ে ছয় নম্বরে আছে রেয়াল সোসিয়েদাদ।