সিঙ্গাপুরকে হারিয়ে ‘মধুর প্রতিশোধ’ নিল বাংলাদেশ

প্রায় সাত বছর আগের হারের প্রতিশোধ নেওয়ার পথে জোড়া গোল করেছেন তহুরা খাতুন।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 Dec 2023, 10:56 AM
Updated : 1 Dec 2023, 10:56 AM

২০১৭ সালের হারের তিক্ত স্মৃতি ছিল সঙ্গী। ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে ১২ ধাপ এগিয়ে থাকা সিঙ্গাপুরকে নিয়ে এবারও সমীহের সুর ছিল কোচ, খেলোয়াড়দের কণ্ঠে। কিন্তু মাঠের লড়াইয়ে দেখা গেল সাবিনা-মারিয়া-তহুরাদের দাপট। শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত আধিপত্য করে প্রায় সাত বছর আগের হারের প্রতিশোধ নিয়েই মাঠ ছাড়ল মেয়েরা।

কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে শুক্রবার প্রীতি ম্যাচে সিঙ্গাপুরকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে বাংলাদেশ। আফিদা খন্দকার তৃতীয় মিনিটে দলকে এগিয়ে নেওয়ার পর জোড়া গোল করেন তহুরা খাতুন।

এর আগে ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে প্রীতি ম্যাচে প্রথম এবং সবশেষ সিঙ্গাপুরের মুখোমুখি হয়েছিল বাংলাদেশ। জালান বেসার স্টেডিয়ামে সেই ম্যাচে ৩-০ গোলে হেরেছিল মেয়েরা। একই স্কোরলাইনে এবার জিতল বাংলাদেশ।

দুই দল দ্বিতীয় প্রীতি ম্যাচে আগামী সোমবার মুখোমুখি হবে। 

চোটের কারণে কৃষ্ণা রানী সরকারের অনুপস্থিতিতে আক্রমণভাগের ধার নিয়ে কিছুটা সংশয় ছিল। তবে শুরুতেই তা দূর হয়ে যায়। প্রথম মিনিটেই গোল পেতে পারত বাংলাদেশ। কিন্তু বক্সে ঢুকে তহুরা গোলরক্ষককে একা পেয়েও দেরি করে ফেলেন, পরে ডিফেন্ডারদের চার্জে শটই নিতে পারেননি এই ফরোয়ার্ড।

এই হতাশা অবশ্য স্থায়ী হয়নি; দুই মিনিট পরই গোল পেয়ে যায় বাংলাদেশ। অধিনায়ক সাবিনা খাতুন ছোট কর্নার নেওয়ার পর মারিয়া মান্দার কাছ থেকে ফিরতি পাস পেয়ে বক্সে লং বল বাড়ান; আফিদার হেডে বল ক্রসবারের ভেতরের দিকে লেগে গোললাইন পেরিয়ে যায়।

ষোড়শ মিনিটে সাবিনার ছোট পাস ধরে একাধিক ডিফেন্ডারকে পায়ের কারিকুরিতে কাটিয়ে বক্সে ঢুকে পড়েন মারিয়া। শটটা তিনি নিলেও গোল পেতে পারতেন; তবে তার পাশে থাকা তহুরা দ্রুত টোকায় বল জড়িয়ে দেন জালে।

চালকের আসনে বসার পর বাংলাদেশ চাপ ধরে রাখে সিঙ্গাপুরের রক্ষণে। বিরতির আগ পর্যন্ত অধিকাংশ সময় খেলাও হয় সফরকারীদের অর্ধে, কিন্তু ব্যবধান আরও বাড়িয়ে নিতে পারেনি বাংলাদেশ।

দ্বিতীয়ার্ধেও শুরুটা বাংলাদেশ করে সিঙ্গাপুরকে চাপে রেখে। ৬০তম মিনিটে ব্যবধানও বাড়িয়ে নেয় দল। মাসুরা পারভীনের লং ক্রসের পেছনে ছুটছিলেন তহুরা, সিঙ্গাপুর গোলরক্ষকও বেরিয়ে আসেন পোস্ট ছেড়ে, বুদ্ধিদ্বীপ্ত চিপে গোলরক্ষকের মাথার উপর দিয়ে বল জালে জড়িয়ে দেন তহুরা। ছুটির দিনে গ্যালারিতে আসা দর্শকরা মেতে ওঠেন উৎসবে।

৭৬তম মিনিটে মারিয়ার শট যায় পোস্ট ঘেঁষে। একটু পর সানজিদা খাতুনকে তুলে শাহেদা আক্তার রিপাকে নামান টিটু। ৮৪তম মিনিটে সাবিনার বাঁ দিকের বক্সের একটু বাইরে থেকে নেওয়া ফ্রি কিক ক্রসবারে লেগে প্রতিহত হয়।

কোচ টিটুর অধীনে প্রথম জয় পেল বাংলাদেশ। সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ জয়ের পরও প্রথম জিতল মেয়েরা। সাফের শিরোপা এনে দেওয়ার পর কোচের দায়িত্ব ছাড়েন গোলাম রব্বানী ছোটন। এরপর খেলা পাঁচ ম্যাচের মধ্যে তিনটিতে ড্র করেছিল দল, হেরেছিল দুটিতে।