ইসলামিক সলিডারিটি গেমস: পদক মিললেও অধরা সোনা

একটি রুপা ও দুটি ব্রোঞ্জ পদক নিয়ে এবারের ইসলামিক সলিডারিটি গেমস শেষ করল বাংলাদেশ।

ক্রীড়া প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 18 August 2022, 03:09 PM
Updated : 18 August 2022, 03:09 PM

বাকু থেকে কনিয়া, মাঝে পেরিয়ে গেছে প্রায় পাঁচটি বছর। কিন্তু ইসলামিক সলিডারিটি গেমসে উন্নতির ছাপ রাখতে পারেনি বাংলাদেশ। এবার তিনটি পদক মিলেছে বটে, কিন্তু সোনার হাসি ফোটেনি অ্যাথলেটদের মুখে।

তুরস্কের কনিয়াতে বৃহস্পতিবার পর্দা নামল ইসলামিক সলিডারিটি গেমসের পঞ্চম আসরের। একটি রুপা ও দুটি ব্রোঞ্জ নিয়ে এবার শেষ করেছে বাংলাদেশ। তিনটি পদকই এসেছে আর্চারি থেকে।

সমাপণী দিনে আর্চারি থেকে আরেকটি পদক প্রাপ্তির আশা ছিল বাংলাদেশের। মেয়েদের কম্পাউন্ড ইভেন্টের ব্রোঞ্জ নির্ধারণী ম্যাচে রোকসানা আক্তার ১৩৬-১৩৩ স্কোরে স্বাগিতক তুরস্কের সুজার আইসে বেরার কাছে হেরে যাওয়ায় তা পূরণ হয়নি।

এদিন কারাতের মেয়েদের অনূর্ধ্ব-৬১ কেজি ওজন শ্রেণিতে গত দক্ষিণ এশিয়ান গেমসে সোনা জেতা হুমায়রা আক্তার অন্তরা হেরেছেন মরোক্কোর প্রতিযোগীর কাছে।

পাঁচ আসর মিলিয়ে বাংলাদেশের প্রাপ্তির পরিসংখ্যান ৬টি পদক। একটি সোনা, দুটি রুপা ও তিনটি ব্রোঞ্জ। একটি করে সোনা, রুপা ও ব্রোঞ্জ মিলেছিল ২০১৭ সালে আজারবাইজানের বাকুর আসরে।

সেবার ১০ মিটার এয়ার রাইফেলের মিক্সড টিম ইভেন্টে আব্দুল্লাহ হেল বাকি ও সৈয়দা আতকিয়া হাসান দিশা সোনা জিতেছিলেন। ওই আসরেই ১০ মিটার এয়ার রাইফেলের পুরুষ এককে রুপা জিতেছিলেন রাব্বী হাসান মুন্না। কুস্তিতে মেয়েদের ৬৯ কেজি ওজন শ্রেণিতে ব্রোঞ্জ পেয়েছিলেন শিরিন সুলতানা।

এবার একমাত্র রুপার পদকটি বাংলাদেশ পেয়েছে আর্চারির মেয়েদের কম্পাউন্ড দলগত ইভেন্টে থেকে। এ ইভেন্টে দলই ছিল দুটি, তাই সরাসরি ফাইনাল খেলার টিকেট মিলে যায়। রোকসানা আক্তার-শ্যামলী রায়-পুস্পিতা জামানকে নিয়ে গড়া দল সোনার পদকের লড়াইয়ে তুরস্কের কাছে ২২৯-২২২ পয়েন্টে হেরে যান।

বাকি দুটি ব্রোঞ্জ রিকার্ভ পুরুষ ও মহিলা দলগত বিভাগ থেকে এসেছে। রিকার্ভ দলগত বিভাগে বাংলাদেশের হয়ে খেলেন রোমান সানা, মোহাম্মদ হাকিম আহমেদ রুবেল ও সাগর ইসলাম। মেয়েদের দলে ছিলেন দিয়া সিদ্দিকী, নাসরিন আক্তার ও বিউটি রায়।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক