গাইবান্ধায় স্ত্রী হত্যায় স্বামীর যাবজ্জীবন

২০১৭ সালের ২৮ নভেম্বর সুমন স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা করে লাশ বাড়ির পাশে খালে ফেলে দেন।

গাইবান্ধা প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 3 Oct 2022, 02:58 PM
Updated : 3 Oct 2022, 02:58 PM

স্ত্রীকে হত্যার দায়ে গাইবান্ধায় এক ব্যক্তির যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হয়েছে।

সোমবার জেলার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল-১ এর বিচারক জ্যেষ্ঠ জেলা ও দায়রা জজ কে এম শহীদ আহমেদ এই রায় দেন।

দণ্ডিত সুমন হাওলাদারকে (৩৮) যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের পাশাপাশি ২০ হাজার টাকা জরিমানাও করা হয়।

সুমন হাওলাদার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ শ্রীপুর গ্রামের টিপু হাওলাদারের ছেলে।

গাইবান্ধার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল-১ এর রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবি পিপি শাহীন গুলশান নাহার জানান, দীর্ঘ শুনানির পর সোমবার আসামির উপস্থিতিতে বিচারক এই রায় ঘোষণা করেন।

মামলার বরাতে পিপি শাহীন জানান, ১১ বছর আগে সুমন হাওলাদার সাদুল্লাপুর উপজেলার দক্ষিণ কাজীবাড়ি সন্তোলা গ্রাম থেকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর থেকে সুমন যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে চাপ দিয়ে আসছিলেন এবং টাকা না পেয়ে প্রায়ই স্ত্রীকে শারীরিক নির্যাতন করতেন।

মেয়েকে নির্যাতনের কথা জানতে পেরে সুমনের শাশুড়ি সুমনকে কিছু টাকা দিয়েছিলেন; কিন্তু পরবর্তীতে সুমন আরও দুই লাখ টাকার জন্য স্ত্রীকে চাপ দিতে থাকেন এবং শ্বশুরবাড়ির লোকজনও তাকে ইন্ধন দেন বলে মামলায় অভিযোগ করা হয়।

এর জের ধরে ২০১৭ সালের ২৮ নভেম্বর সুমনসহ অন্যরা তাকে মারধরে হত্যা করে লাশ বাড়ির পাশে নয়নসুখ খালে ফেলে আসেন বলে অভিযেগে বলা হয়।

পিপি শাহীন জানান, এ ঘটনায় সুমন হাওলাদারসহ ছয় জনকে আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করা হয়। পুলিশ একমাত্র সুমনকে আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র দেয়।

আসামিপক্ষে আইনজীবী আবু আলা সিদ্দিকুল ইসলাম মামলা পরিচালনা করেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক