পিরোজপুরে ‘চাকরির প্রলোভনে টাকা আত্মসাৎ’, গ্রেপ্তার ২

চাকরি দিতে না পারায় টাকা এবং চেক ফেরত চাইলে প্রতারকরা টালবাহনা শুরু করে।

পিরোজপুর প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 30 July 2022, 04:46 PM
Updated : 30 July 2022, 04:46 PM

পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়া উপজেলায় কারারক্ষী পদে চাকরি দেওয়ার কথা বলে টাকা আত্মসাতের মামলায় দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শনিবার ভাণ্ডারিয়া থানায় এক সংবাদ সম্মেলনে পিরোজপুরের এসপি মোহাম্মদ সাঈদুর রহমান এ কথা জানান।

গ্রেপ্তার মাহাবুব হাওলাদার (৪৮) ভাণ্ডারিয়া উপজেলার নদমূলা গ্রামের নূরুল ইসলাম হাওলাদারের এবং মনির হোসেন (৩৫) বরগুনা সদরের গাজী মাহমুদ গ্রামের আবু তাহের মৃধার ছেলে।

মামলার নথির বরাতে এসপি সাঈদুর রহমান জানান, উপজেলার দক্ষিণ ভাণ্ডারিয়া মহল্লার কাপড় ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম মানিকের ছেলে সিয়াম ও তার বন্ধু ইব্রাহিম হাওলাদারকে ২০ লাখ টাকা বিনিময়ে চাকরি দেওয়ার কথা বলে একটি চক্র। চক্রটি নিয়োগ পরীক্ষা ছাড়াই কারারক্ষী পদে চাকরি দেওয়ার কথা বলে ২০২১ সনের ১২ ডিসেম্বর নগদ আড়াই লাখ টাকা নেয়। বাকি টাকার চেক নিয়ে জালিয়াতির মাধ্যমে চাকরি দেওয়ার চেষ্টা চালায়। প্রতারকরা চাকরি প্রার্থীদের ভূয়া পুলিশ ভেরিফিকেশন পর্যন্ত সম্পন্ন করে।

“চাকরি দিতে না পারায় টাকা এবং চেক ফেরত চাইলে টালবাহনা শুরু করে প্রতারকরা। কোনো উপায় না দেখে নজরুল ইসলাম মানিক গত সোমবার মাহাবুব হাওলাদারকে আসামি করে ভাণ্ডারিয়া থানায় একটি প্রতারণার মামলা করেন।”

এসপি সাঈদুর রহমান আরও জানান, গত বুধবার পুলিশ খুলনার হরিণটানা থানার বনলতা আবাসিক এলাকার একটি বাসা থেকে মাহাবুব হাওলাদারকে গ্রেপ্তার করে।

“শুক্রবার সকালে তাকে সঙ্গে নিয়ে অভিযান চালিয়ে রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানার রাজউক কমার্শিয়াল মার্কেটের সামনে থেকে চক্রের অপর সদস্য মো. মনির হোসেনকে করে পুলিশ।”

পরে মাহাবুব হাওলাদারের কাছ থেকে ব্যাংকের চেক, চুক্তিনামা ও চাকরি প্রার্থী ১৭ জনের একটি তালিকা জব্দ করা হয়। এ ছাড়া চক্রের অপর সদস্য আরিফুলকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত আছে বলে পুলিশের এ কর্মকর্তা জানান।

“গ্রেপ্তারকৃতদের শনিবার আদালতের মাধ্যমে পিরোজপুর কারাগারে পাঠানো হয়েছে।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক