বরগুনায় শোক দিবসের কর্মসূচিতে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে শিল্পকলা একাডেমির সামনে দুটি পক্ষ সংঘর্ষে জড়ায়।

বরগুনা প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 15 August 2022, 12:07 PM
Updated : 15 August 2022, 12:07 PM

বরগুনায় জাতীয় শোক দিবসের কর্মসূচিতে ছাত্রলীগের দুটি পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে।

সোমবার দুপুরে জেলা শিল্পকলা একাডেমির সামনে এ সংঘর্ষ হয়। পরে পুলিশ লাঠিপেটা করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে।

পুলিশ, প্রত্যক্ষদর্শী ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা জানান, জাতীয় শোক দিবসে বেলা ১২টার দিকে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি কমপ্লেক্সে ফুল দিতে যান জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল করিম রেজা ও সাধারণ সম্পাদক তৌশিকুর রহমান ইমরান।

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে ফেরার সময় শিল্পকলা একাডেমির সামনে ভবনের উপর থেকে তাদের উপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করা হলে দুপক্ষের সংঘর্ষ বেধে যায়।

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এসএম তারেক রহমান বলেন, শিল্পকলা একাডেমির সামনে ছাত্রলীগের দুগ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। পুলিশ গিয়ে সকলকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এ সময় একটি গ্রুপ শিল্পকলা একাডেমিতে ঢোকে। আরেকটি ফিরে যায়।

“শিল্পকলা একাডেমির দ্বিতীয় তলা থেকে সংঘর্ষকারীরা পুলিশের গাড়িতে ইট ছুড়ে মারে৷ এ সময় কয়েকটি মোটরসাইকেলসহ অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের গাড়ি ভাঙচুর করা হয়। পুলিশ লাঠিচার্জ করে সংঘর্ষকারীদের ছত্রভঙ্গ করেছে।”

তিনি জানান, পরে শিল্পকলা একাডেমি ও লঞ্চঘাট এলাকায় অভিযান চালিয়ে পুলিশ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার এবং ঘটনাস্থল থেকে দুই জনকে আটক করে।

তবে আটকদের নাম ও পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল করিম রেজা বলেন, তারা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শান্তিপূর্ণভাবে মিছিল নিয়ে শিল্পকলা একাডেমির গেইট দিয়ে ভেতরে ঢুকছিলেন। ওই সময় জেলা কমিটিতে কাঙ্ক্ষিত পদবঞ্চিতরা অতর্কিত হামলা চালায়।

এরপর তারা সেখান থেকে ফিরে যান বলে জানান রেজাউল।

এ ব্যাপারে জেলা সহসভাতি সবুজ মোল্লাকে ফোন করা হলেও পাওয়া যায়নি। সবুজ মোল্লা বর্তমান কমিটিতে সভাপতি পদপ্রার্থী ছিলেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক