বখাটেপনার প্রতিবাদ করায় বাস চালককে কুপিয়ে হত্যা

“বিষয়টি কোনোভাবে জানতে পেরে জহিরুল ক্ষিপ্ত হয়ে ছুরি নিয়ে এসে মাসুমকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। এ সময় মাসুম মাটিতে লুটিয়ে পড়ে।”

ময়মনসিংহ প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 31 Jan 2024, 05:15 AM
Updated : 31 Jan 2024, 05:15 AM

ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলায় বখাটেপনার প্রতিবাদ করায় এক বাসচালককে কুপিয়ে হত্যার পর জড়িত যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার বিসকা ইউনিয়নের মাথুয়াদী গ্রামে এই ঘটনা ঘটে বলে তারাকান্দা থানার ওসি ওয়াজেদ আলী জানান।

নিহত ৩৫ বছরের মাসুম ওরফে মাজু ওই গ্রামের আব্দুল কাদিরের ছেলে। তিনি পেশায় বাস চালক ছিলেন। এই ঘটনায় গ্রেপ্তার জহিরুল ইসলাম জহির (৩০) একই এলাকার মৃত মজিবর রহমানের ছেলে।

বিসকা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আলী আহমেদ খান বলেন, “মাদকাসক্ত জহিরুল সব সময় সাথে দা, ছুরিসহ ধারালো অস্ত্র নিয়ে ঘোরাফেরা করতো। স্থানীয় হোসেন খার মোড়ে মানুষকে বিভিন্নভাবে অত্যাচার ও নির্যাতন করতো সে।

“জহিরুলের যন্ত্রণায় এলাকাবাসী অতিষ্ঠ ছিল। এমনকি বেপরোয়া জীবন যাপন করায় তার বউও তাকে ছেড়ে গিয়েছে।”

সাবেক চেয়ারম্যান আলী বলেন, “মাসুম মঙ্গলবার জহিরুলের এসব অন্যায়ের প্রতিবাদ করেন এবং হোসেন খার মোড়ে তাকে কোনো সন্ত্রাসী কার্যকলাপ করতে দেবেন না বলে স্থানীয় কয়েকজনের সঙ্গে আলোচনা করেন।

“বিষয়টি কোনোভাবে জানতে পেরে জহিরুল ক্ষিপ্ত হয়ে ছুরি নিয়ে এসে মাসুমকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। এ সময় মাসুম মাটিতে লুটিয়ে পড়ে।”

স্থানীয়রা তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি ওয়াজেদ আলী বলেন, “ঘটনার পরপরেই বখাটে জহিরুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে।”

এই ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলেও জানান ওসি।