নারায়ণগঞ্জে ফ্ল্যাটে জমা ‘গ্যাসের আগুনে’ মা-ছেলে দগ্ধ

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, সীমা বেগমের শরীরের ৬০ শতাংশ তার রোমানের ১৪ শতাংশ পুড়ে গেছে৷

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 2 Dec 2023, 11:57 AM
Updated : 2 Dec 2023, 11:57 AM

নারায়ণগঞ্জ নগরীতে ফ্ল্যাটে ‘পাইপ লাইনের লিকেজ’ থেকে জমা ‘গ্যাসের আগুনে’ এক নারী ও তার ছেলে দগ্ধ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

শনিবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে নিতাইগঞ্জে মোল্লাপাড়া এলাকায় একটি ভবনের তৃতীয় তলার ফ্ল্যাটে এ ঘটনা ঘটে।

দগ্ধরা হলেন- সীমা বেগম (৫০) ও তার ছেলে রোমান হোসেন (২৫)। তারা রাজধানীর শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন।

হাসপাতালটির আবাসিক সার্জন তরিকুল ইসলাম বলেন, “সীমা বেগমের শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক৷ শরীরের ৬০ শতাংশ দগ্ধ অবস্থায় তিনি হাসপাতালটির হাই-ডিপেন্ডেন্সি ইউনিটে চিকিৎসাধীন। তার ছেলের শরীরের ১৪ শতাংশ পুড়ে গেছে৷ তাকে অবজারভেশন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে৷”

সীমা বেগম তার ছেলেকে নিয়ে ওই ফ্ল্যাটে ভাড়া থাকতেন বলে জানান তার ছোটবোন শাহেদা বেগম৷

শাহেদা বেগম বলেন, “হাসপাতালে বোনের সঙ্গে কথা হয়েছে৷ গ্যাস লাইনের লিকেজ থেকে ঘরের ভেতর গ্যাস জমেছে রাতেই এমনটা টের পেয়েছিলেন আমার বোন৷

“কিন্তু বিষয়টাকে পাত্তা না দিয়ে বোন ও ভাগনে ঘুমিয়ে পড়ে৷ সকালে রান্নার জন্য চুলা জ্বালাতে গেলেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে রান্নাঘর থেকে পুরো ঘরে৷ এতে তারা দুজন দগ্ধ হন৷”

তিনি আর বলেন, পাশের ফ্ল্যাটের লোকজন প্রথমে তাদের নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়৷ পরে তাদের রাজধানীর শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে নেওয়া হয়৷

তবে আগুনের বিষয়টি ভুক্তভোগী পরিবার বা স্থানীয় কেউ ফায়ার সার্ভিসকে জানায়নি বলে জানান নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের উপসহকারী পরিচালক ফখরউদ্দিন আহাম্মদ৷

তিনি বলেন, “আমরা অনেক পরে বিষয়টি জেনেছি৷ এ বিষয়ে খোঁজ নেওয়া হবে৷”