মাকে গালাগালের প্রতিবাদ করায় ছোট ভাইকে কুপিয়ে জখম, ৮ দিন পর মৃত্যু

ময়মনসিংহে সম্পত্তি ভাগবাটোয়ারা নিয়ে প্রথমে মাকে গালাগাল; পরে দুই ভাইয়ের মধ্যে কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে ছোট ভাইকে কুপিয়ে জখম করা হয় বলে জানায় পুলিশ।

ময়মনসিংহ প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 29 Jan 2024, 01:26 PM
Updated : 29 Jan 2024, 01:26 PM

ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলায় মাকে গালাগালের প্রতিবাদ করায় ছোট ভাইকে কুপিয়ে জখমের আট দিন পর মারা গেছেন। এ ঘটনার পর থেকে নিহতের বড় ভাই পলাতক রয়েছেন। 

সোমবার সকালে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান বলে জানান ভালুকা থানার এসআই কাজল হোসেন। 

২১ জানুয়ারি সকাল ১০টার দিকে উপজেলার কাচিনা ইউনিয়নের কাচিনা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে বলে জানান তিনি। 

নিহত কৌশিক আহমেদ (৩৭) ওই এলাকার আলী আহমেদের ছেলে। কাউসার আহমেদ (৪০) নিহতের বড় ভাই। 

স্থানীয়দের বরাতে এসআই কাজল হোসেন বলেন, “কাউসার ও কৌশিক একসঙ্গে ফিসারি এবং ব্রয়লার মুরগির ব্যবসা করতেন। ঘটনার দিন সম্পত্তি ভাগবাটোয়ারা নিয়ে কাউসার তার মা কুলসুম বেগমকে গালিগালাজ করেন। এর প্রতিবাদ করেন কৌশিক। 

“এই নিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে কাউসার দা দিয়ে কৌশিকের ডান পায়ের হাঁটুর কোপ দেন। এতে কৌশিক গুরুতর আহত হয়।” 

পরে তাকে প্রথমে ভালুকা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয় বলে জানান এসআই। 

তিনি বলেন, তিন দিন আগে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র নিয়ে কৌশিক তার শ্বশুরবাড়িতে যান। রোববার রাতে আবারও অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল ৯টার দিকে তিনি মারা যান। 

এ ঘটনায় ২২ জানুয়ারি কৌশিকের মা কুলসুম বেগম বাদী হয়ে ভালুকা থানায় মামলা করেন। 

ঘটনার পর থেকে আসামি পলাতক রয়েছেন; তাকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে বলে জানান এসআই কাজল।