মানবপাচার: নারায়ণগঞ্জে চারজনের যাবজ্জীবন

এই মামলায় চারজনকে খালাস দিয়েছে আদালত।

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 10 August 2022, 02:14 PM
Updated : 10 August 2022, 02:14 PM

মানবপাচারের দায়ে চারজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে নারায়ণগঞ্জের একটি আদালত।

বুধবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক নাজমুল হক শ্যামল এই রায় ঘোষণা করেন বলে রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি রকিবউদ্দিন আহমেদ জানান।

সাজাপ্রাপ্তরা হলেন- নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থানার নিমাইকাশারীর মর্জিনা বেগম ওরফে বানেছা (৪৬), একই থানার বাগমারার জেসমিন বেগম (৪২), ভোলা সদরের টিটু (৩৫) এবং শাহাবুদ্দিন।

এর মধ্যে পলাতক রয়েছেন জেসমিন বেগম। বাকিরা রায় ঘোষণার সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

মামলার বরাতে আদালত পুলিশের পরিদর্শক মো. আসাদুজ্জামান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, ২০১৬ সালের ২৭ ডিসেম্বর সিদ্ধিরগঞ্জের নিমাইকাশারী এলাকা থেকে নিখোঁজ হয় আট বছরের শিশু বায়েজিদ। পরে মোবাইল ফোনে বায়েজিদের পরিবারের কাছে মুক্তিপণ দাবি করা হয়। ২০১৭ সালের ৯ জানুয়ারি র‌্যাব-১১ এর সদরদপ্তরে অভিযোগ জানায় পরিবারের লোকজন। পরে র‌্যাব ১৮ জানুয়ারি বায়েজিদকে উদ্ধার করে।

ওই বছরের ৯ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর সায়েদাবাদ ও সিদ্ধিরগঞ্জের বাগমারা এলাকা থেকে আটজনকে আটক করা হয়। অভিযানে একটি পিস্তল, একটি ম্যাগাজিন, তিনটি গুলি, দুটি চাকু, একটি চাপাতি, এক হাজার ২০ ইয়াবা, ২৩টি চেতনানাশক ইনজেকশন, দুটি ব্যবহৃত ইনজেকশন, ১৪টি সিরিঞ্জ এবং ১৭টি মোবাইল সেট উদ্ধার করা হয়।

এই ঘটনায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় মামলা করেন শিশু বায়েজিদের মা মোছা. ডালিম। ওই বছরের শেষের দিকে আটজনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ।

এই ঘটনার সাক্ষ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে আদালত চার আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রদান করেছেন। রায়ের সময় আদালতে উপস্থিত তিন আসামিকে আইনানুগ কার্যক্রম শেষে নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী রকিবউদ্দিন আহমেদ বলেন, মামলায় ১৮ জনের সাক্ষ্য ও প্রমাণের ভিত্তিতে মানবপাচার প্রতিরোধ ও দমন আইনের ৭ ধারায় আদালত চার আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড প্রদান করেন। একই মামলায় অপর একটি ধারায় ১৪ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও এক লাখ টাকা করে অর্থদণ্ড দেওয়া হয়।

এই মামলায় খালাস পেয়েছেন চারজন। তারা হলেন- সাজাপ্রাপ্ত মর্জিনা বেগমের স্বামী জাকির হোসেন (৫৫), মোহাম্মদ হোসেন সাগর ওরফে বেলু ওরফে দেলু (২২), শরিফ ও আসলাম ওরফে আলামিন (২৮)। রায়ের সময় তারা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক