ঘোর বর্ষায় বন্যার দুর্ভোগে মানুষ

তিস্তা নদী ও ব্রহ্মপুত্র নদের আশপাশের জেলাগুলোয় বন্যার দুর্ভোগ পোহাচ্ছে মানুষজন। বিভিন্ন জায়গায় বিপদসীমার উপর দিয়ে নদীর পানি প্রবাহিত হচ্ছেও।
  • গত কয়েক দিনের টানা বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা ঢলে কুড়িগ্রামের বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে।

    গত কয়েক দিনের টানা বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা ঢলে কুড়িগ্রামের বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে।

  • সোমবার বিকাল ৬টায় ধরলার পানি বিপদসীমার ৯৬ সেন্টিমিটার, দুধকুমর নদীর পানি বিপদসীমার ৬৭ সেন্টিমিটার, ব্রহ্মপুত্রের পানি চিলমারী পয়েন্টে বিপদসীমার ৬৭ সেন্টিমিটার ও তিস্তার পানি ১৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল।

    সোমবার বিকাল ৬টায় ধরলার পানি বিপদসীমার ৯৬ সেন্টিমিটার, দুধকুমর নদীর পানি বিপদসীমার ৬৭ সেন্টিমিটার, ব্রহ্মপুত্রের পানি চিলমারী পয়েন্টে বিপদসীমার ৬৭ সেন্টিমিটার ও তিস্তার পানি ১৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল।

  • জেলার ৯টি উপজেলার ৫৬টি ইউনিয়নের ৫ শতাধিক গ্রামের প্রায় দুই লাখের বেশি মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। বানভাসী মানুষের মাঝে খাদ্য, বিশুদ্ধ পনি ও জ্বালানি সংকট দেখা দিয়েছে।

    জেলার ৯টি উপজেলার ৫৬টি ইউনিয়নের ৫ শতাধিক গ্রামের প্রায় দুই লাখের বেশি মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। বানভাসী মানুষের মাঝে খাদ্য, বিশুদ্ধ পনি ও জ্বালানি সংকট দেখা দিয়েছে।

  • ধরলা নদীর পানির চাপে সদর উপজেলার সারডোবে একটি বিকল্প বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ভেঙে ২০টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে বলে জানিয়েছেন হলোখানা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান উমর ফারুক।

    ধরলা নদীর পানির চাপে সদর উপজেলার সারডোবে একটি বিকল্প বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ভেঙে ২০টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে বলে জানিয়েছেন হলোখানা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান উমর ফারুক।

  • গাইবান্ধার সব নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় জেলার সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। সোমবার বিকাল ৩টায় ব্রহ্মপুত্রের পানি বিপদসীমার ৬৭ সেন্টিমিটার, তিস্তার নদীর পানি বিপদসীমার ১৫ সেন্টিমিটার ও ঘাঘট নদীর পানি বিপদসীমার ৪৩ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল।

    গাইবান্ধার সব নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় জেলার সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। সোমবার বিকাল ৩টায় ব্রহ্মপুত্রের পানি বিপদসীমার ৬৭ সেন্টিমিটার, তিস্তার নদীর পানি বিপদসীমার ১৫ সেন্টিমিটার ও ঘাঘট নদীর পানি বিপদসীমার ৪৩ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল।

  • নদ-নদীর পানি আরও দুদিন বৃদ্ধি পাবে বলছেন গাইবান্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোখলেছুর রহমান। ফলে ব্রহ্মপুত্রের পানি বিপদসীমার ১০০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হতে পারে।

    নদ-নদীর পানি আরও দুদিন বৃদ্ধি পাবে বলছেন গাইবান্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোখলেছুর রহমান। ফলে ব্রহ্মপুত্রের পানি বিপদসীমার ১০০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হতে পারে।

  • গাইবান্ধার ৪টি উপজেলার ২৬টি ইউনিয়ন পুনরায় বন্যা কবলিত হয়ে পড়েছে। ওইসব এলাকার ১ লাখ ২২ হাজার মানুষের ঘরবাড়িতে পানি উঠেছে বলে জানান জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা ইদ্রিশ আলী।

    গাইবান্ধার ৪টি উপজেলার ২৬টি ইউনিয়ন পুনরায় বন্যা কবলিত হয়ে পড়েছে। ওইসব এলাকার ১ লাখ ২২ হাজার মানুষের ঘরবাড়িতে পানি উঠেছে বলে জানান জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা ইদ্রিশ আলী।

  • যমুনা ও পুরাতন ব্রহ্মপুত্রসহ অন্যান্য নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় জামালপুরে বন্যা পরিস্থিতি অবনতি হয়েছে। যমুনার পানি বিপদসীমার ৭৭ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন জামালপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ আবু সাঈদ।

    যমুনা ও পুরাতন ব্রহ্মপুত্রসহ অন্যান্য নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় জামালপুরে বন্যা পরিস্থিতি অবনতি হয়েছে। যমুনার পানি বিপদসীমার ৭৭ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন জামালপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ আবু সাঈদ।

  • সরকারি হিসাবে জেলার ২৮ হাজার ৬১২টি পরিবারের ১ লাখ ১৪ হাজার ৭৩৩ জন মানুষ পানিবন্দী হয়েছে। সরকারিভাবে জেলায় ৪৪১টি আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এর মধ্যে ১৪টি আশ্রয় কেন্দ্রে মানুষ এখন পর্যন্ত আশ্রয় নিয়েছে।

    সরকারি হিসাবে জেলার ২৮ হাজার ৬১২টি পরিবারের ১ লাখ ১৪ হাজার ৭৩৩ জন মানুষ পানিবন্দী হয়েছে। সরকারিভাবে জেলায় ৪৪১টি আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এর মধ্যে ১৪টি আশ্রয় কেন্দ্রে মানুষ এখন পর্যন্ত আশ্রয় নিয়েছে।

  • দেওয়ানগঞ্জের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুলতানা রাজিয়া জানিয়েছেন, যমুনার পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় তাদের উপজেলা পরিষদে সোমবার পানি ঢুকেছে। অনেক প্রতিষ্ঠানেই পানি ঢুকেছে। ইসলামপুরে পাট ও আউশ ধানক্ষেত পানিতে ডুবে গেছে।

    দেওয়ানগঞ্জের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুলতানা রাজিয়া জানিয়েছেন, যমুনার পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় তাদের উপজেলা পরিষদে সোমবার পানি ঢুকেছে। অনেক প্রতিষ্ঠানেই পানি ঢুকেছে। ইসলামপুরে পাট ও আউশ ধানক্ষেত পানিতে ডুবে গেছে।

Print Friendly and PDF

আরও পড়ুন

 
Comments powered by Disqus

WARNING:

Any unauthorised use or reproduction of bdnews24.com content for commercial purposes is strictly prohibited and constitutes copyright infringement liable to legal action.