গোপালগঞ্জে ‘পাচারকালে’ চালসহ টিসিবির পণ্য জব্দ, তদন্তে কমিটি

মঙ্গলবার ইউপি চেয়ারম্যানের চিঠি পাওয়ার পর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তাকে প্রধান করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 19 Feb 2024, 06:38 AM
Updated : 19 Feb 2024, 06:38 AM

গোপালগঞ্জে পাচারকালে দেড় হাজার কেজি চাল ও অন্য পণ্য জব্দের পর ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য মঙ্গলবার সকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে চিঠি দেন কোটালীপাড়া উপজেলার রামশীল ইউপি চেয়ারম্যান শ্যামল কান্তি বিশ্বাস।  

তদন্ত কমিটি গঠনের কথা জানান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফেরদৌস ওয়াহিদ জানান।

ইউপি চেয়ারম্যান শ্যামল কান্তি বলেন, “গত সোমবার রাত ১০টার দিকে রামশীল ইউপির অস্থায়ী গোডাউনে রাখা ১ হাজার ৪৫০ কেজি চাল, ৫৬ লিটার তেল ও ২০ কেজি মুসুর ডাল টিসিবি ডিলার কাজী এমরান তার বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয়রা ধরে আমাদের খবর দেন।

“আমি মালামাল জব্দ করে ইউনিয়ন পরিষদে রেখে দিই। রাতেই উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে বিষয়টি জানাই। বিষয়টি পুলিশকেও জানানো হয়েছে।”

রামশীল গ্রামের হরপ্রসাদ বালা অভিযোগ করে বলেন, এসব মালামাল জনগণের মধ্যে বিতরণ না করে বাইরে বেশি দামে বিক্রির জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। এ বিষয়ে ওই ডিলারের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন হরপ্রসাদ।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফেরদৌস ওয়াহিদ জানান, মঙ্গলবার ইউপি চেয়ারম্যানের চিঠি পাওয়ার পর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তাকে প্রধান করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত শেষে দোষী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তবে টিসিবি ডিলার কাজী এমরানের দাবি, “ওই ইউনিয়নে আমার টিসিবির পণ্য বিক্রয় সম্পন্ন হয়েছে। উদ্বৃত্ত পণ্য অন্য ইউনিয়নে বিতরণের জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। তখন স্থানীয়রা সেগুলো জব্দ করে।”

[প্রতিবেদনটি প্রথম প্রকাশিত হয়েছিল ০৩ অক্টোবর ২০২৩ তারিখে: ফেইসবুক লিংক]