রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নৈশ প্রহরীকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা

ইয়াছিন ক্যাম্পে শিশুদের জন্য চালু থাকা একটি লার্নিং সেন্টারের নৈশ প্রহরী ছিলেন।

কক্সবাজার প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 28 Jan 2024, 06:44 PM
Updated : 28 Jan 2024, 06:44 PM

কক্সবাজারে উখিয়া উপজেলার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ‘আধিপত্য বিস্তারের জেরে’ এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।  

রোববার রাত সাড়ে ১০টায় উপজেলার পালংখালী ইউনিয়নের জামতলী ১৫ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এ ঘটনা ঘটে বলে উখিয়া থানার ওসি মো. শামীম হোসেন জানান।

নিহত মো. ইয়াছিন (৩৫) একই ক্যাম্পের সি-১ ব্লকের বাসিন্দা আব্দুল বারীর ছেলে। তিনি ক্যাম্পে একটি বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থার অধীনে শিশুদের জন্য চালু থাকা লার্নিং সেন্টারের নৈশ প্রহরী ছিলেন।

রোহিঙ্গা ক্যাম্পের নিরাপত্তায় নিয়োজিত এপিবিএন ও স্থানীয়দের বরাতে ওসি শামীম সাংবাদিকদের বলেন, রাতে ইয়াছিন নৈশ প্রহরীর দায়িত্ব পালন করছিলেন। এ সময় মুখোশধারী ৭-৮ জন তাকে ঘিরে ধরে মারধর শুরু করে। একপর্যায়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে তাকে হত্যা করে ফেলে রেখে যায়।

এপিবিএন পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছার আগেই হত্যাকারীরা পালিয়ে যায় জানিয়ে ওসি বলেন, “কারা, কী কারণে এ হত্যা করেছে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আধিপত্য বিস্তারের জেরে এ হত্যাকাণ্ড হতে পারে।”

ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানান ওসি।