সাবেক চেয়ারম্যান হত্যা: বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যানসহ গ্রেপ্তার ৮

পিরোজপুরের পুলিশ সুপার জানান, নিহত সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানের স্ত্রী বাদী বর্তমান চেয়ারম্যানকে প্রধান আসামি করে মামলা করেছেন।

পিরোজপুর প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 31 Jan 2024, 09:57 AM
Updated : 31 Jan 2024, 09:57 AM

পিরোজপুরের নেছারাবাদ উপজেলায় সাবেক চেয়ারম্যান হত্যা মামলায় আটঘর কুড়িয়ানা ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যানসহ আটজনকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব ও পুলিশ। 

বুধবার সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান র‌্যাব-৮ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল কাজী যুবায়ের আলম।

এদিকে, পিরোজপুরের পুলিশ সুপার (এসপি) মুহাম্মদ শরীফুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় নিহত সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান শেখর কুমার সিকদারের স্ত্রী মালা রানী মণ্ডল বাদী হয়ে হত্যা মামলা করেছেন।

সেখানে বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান মিঠুন হালদাকে প্রধান করে ১৫ জনকে আসামি করা হয়েছে বলে জানান এসপি।

তিনি বলেন, হত্যাকাণ্ডের পরপরই অভিযান চালিয়ে শংকর সরকার, বাবুল হাওলাদার, তাপস মজুমদার ও স্বাধীন হালদারকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এ ঘটনায় বুধবার ভোরে অভিযান চালিয়ে র‌্যাব-৮ বাগেরহাটের মোল্লার হাট এলাকা থেকে চারজনকে গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তাররা হলেন- আটঘর কুড়িয়ানা ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মিঠুন হালদার (৪৪), তার ছোট ভাই সুষময় হালদার (১৮), একই ইউনিয়নের মুসলিম গ্রামের জালিস মাহমুদ (২৪) ও সংগীতকাঠি এলাকার আমিনুল ইসলাম (২৩)।

অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল কাজী যুবায়ের আলম বলেন, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় কুড়িয়ানা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে যোগদানের উদ্দেশে রওনা দেন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান শেখর কুমার সিকদার।

“কুড়িয়ানা বাজারের কাছে পৌঁছালে বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান মিঠুন হালদারের নেতৃত্বে ২৫/৩০ জন শেখর কুমার সিকদারের পথরোধ করে। পরে তারা লাঠি ও ইট দিয়ে পিটিয়ে শেখরকে গুরুতর আহত করে পালিয়ে যায়। “

তিনি বলেন, “পরে তাকে উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।” 

পূর্ব শত্রুতা ও আধিপত্য বিস্তার কেন্দ্র করে এবং মিঠুন হালদারের সঙ্গে শেখর কুমার সিকদারের বিরোধ ছিল বলে জানান তিনি।

অধিনায়ক বলেন, হত্যার পর পর আসামিরা আত্মগোপনে ছিলেন। তথ্য ও প্রযুক্তি ব্যবহার করে বুধবার ভোরে বাগেরহাটের মোল্লার হাট এলাকায় থেকে হত্যা মামলার নামধারী দুইজনসহ অজ্ঞাত দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়।

আসামিদের নেছারাবাদ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান র‌্যাবের এই কর্মকর্তা।

আরও পড়ুন:

Also Read: পিরোজপুরে প্রতিপক্ষের হামলায় সাবেক চেয়ারম্যানের মৃত্যুর অভিযোগ