সোনারগাঁয়ে হুমায়রা হত্যা: মা-মেয়ের পর এবার বাবা-ছেলে গ্রেপ্তার

সোনারগাঁয়ের বড় নয়াগাঁও এলাকায় মাটিতে পুঁতে রাখা সাত বছর বয়সী হুমায়রা আক্তারের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 August 2022, 05:57 PM
Updated : 1 August 2022, 05:57 PM

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে শিশু হুমায়রা হত্যা মামলার দুই আসামিকে মুন্সিগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

রোববার রাতে মুন্সিগঞ্জ সদরের দক্ষিণ কেওয়ার এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয় বলে র‌্যাবের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

গ্রেপ্তার দুই আসামি হলেন- সোনারগাঁয়ের চেঙ্গাকান্দি গ্রামের সেলিম মিয়া ওরফে উদয় (২২) ও তার বাবা শুক্কুর আলী (৫০)।

সোমবার দুপুরে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব-১১ এর উপ-পরিচালক স্কোয়াড্রন লিডার একেএম মুনিরুল আলম বলেন,

গত বৃহস্পতিবার সোনারগাঁয়ের বড় নয়াগাঁও এলাকা থেকে মাটিতে পুঁতে রাখা অবস্থায় সাত বছর বয়সী হুমায়রা আক্তারের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় নিহতের মা সেতারা বেগম বাদী হয়ে ছয়জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও পাঁচ থেকে ছয়জনকে আসামি করে সোনারগাঁ থানায় হত্যা মামলা করেন বলে তিনি জানান।

মামলায় এর আগে হুমায়রার ভাবি বৈশাখী আক্তার ও তার মা মনোয়ারা বেগমকে গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ।

জিজ্ঞাসাবাদে আসামিদের দেওয়া তথ্যের বরাতে র‌্যাব কর্মকর্তা মুনিরুল আলম জানান, হুমায়রার বড় ভাই সজীবের সঙ্গে তার ভাইরা সেলিম মিয়ার দ্বন্দ্ব ছিল।

র‌্যাবের এ কর্মকর্তা জানান, শ্বশুরবাড়ির লোকজনের সঙ্গে সজীবের স্ত্রী বৈশাখীর সম্পর্ক ভালো যাচ্ছিল না। পরিবারিক বিরোধের জেরে সজীবের ছোট বোন হুমায়রাকে হত্যার পরিকল্পনা হয়। সেলিমের কথায় শিশু হুমায়রাকে বাসা থেকে নিয়ে বের হন বৈশাখী।

“সেলিমের হাতে তুলে দিয়ে বাড়িতে ফিরে বৈশাখী জানান, শিশু হুমায়রা হারিয়ে গেছে। এদিকে, সেলিম শিশুটিকে হত্যা করে মাটির নিচে পুঁতে রাখেন।”

গ্রেপ্তার দুই আসামিকে সোনারগাঁ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে মুনিরুল আলম জানান।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক