ভিসা স্যাংশনে কম্পন শুরু হয়েছে, পরেরটা আরও কঠিন: আমির খসরু

“বিদেশিরা যেটা বলেছেন তার সঙ্গে আমাদের তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি পুরো মিলে গেছে।”

ফরিদপুর প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 19 Feb 2024, 06:26 AM
Updated : 19 Feb 2024, 06:26 AM

এক ভিসা স্যাংশনেই সরকারের মধ্যে ‘কম্পন’ শুরু হয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ। 

তিনি বলেছেন, “এই সরকারকে আমেরিকা ভিসা স্যাংসন দিয়েছে; তাতেই তাদের কম্পন শুরু হয়ে গেছে। এরপর বাংলাদেশের মানুষের যে ভিসা নীতি আসবে সেটি আরও কঠিন হবে। এখানে মাফ পাওয়ার সুযোগ নাই।

আমির খসরু সরকারের উদ্দেশে বলেন, “ভোট চুরির প্রকল্প এখন তাদের একমাত্র ভরসা। এই প্রজেক্টে আছে কিছু দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তা, দুর্নীতিবাজ পুলিশ, দুর্বৃত্ত ব্যবসায়ী। আপনারা সবাই চোখকান খোলা রাখবেন। এই ভোটচুরির সঙ্গে জড়িতদের নাম তালিকাভুক্ত করে রাখবেন। আমরা এই ভোট চোরদের তালিকা প্রকাশ করে দেব।”

বিএনপির বিভাগীয় রোড মার্চ উপলক্ষে মঙ্গলবার দুপুরে ফরিদপুর শহরের রাজবাড়ী রাস্তার মোড়ে (বঙ্গবন্ধু স্কয়ার) অনুষ্ঠিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী এসব কথা বলেন।

এখন এই সরকারের সঙ্গে কেউ নেই উল্লেখ করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য বলেন, “বিশ্বের যত দেশ আছে, যত গণতন্ত্রের সংগঠন আছে, যত গণঅধিকার সংগঠন আছে তারাও সিদ্ধান্ত দিয়ে দিয়েছে। এই সরকারের সঙ্গে কেউ নেই। দেশেও নাই, বিদেশেও নাই।

“ইউরোপীয় ইউনিয়ন এদেশে এসে ঘুরে গেছে। তারা বলেছে, এখানে সুষ্ঠ নির্বাচনের পরিবেশ নেই তাই, তারা নির্বাচনে পর্যবেক্ষক পাঠাবে না। বিদেশিরা যেটা বলেছেন তার সঙ্গে আমাদের তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি পুরো মিলে গেছে।

সরকারের পদত্যাগ ও সংসদ বিলুপ্ত করে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন এবং বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির এক দফা দাবিতে সারা দেশের বিভাগীয় রোড মার্চের অংশ হিসেবে বেলা ১১টায় রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ থেকে এ রোড মার্চ অনুষ্ঠিত হয়। পথে বসন্তপুরে সমাবেশ করে ফরিদপুরে পৌঁছে রোড মার্চটি দুপুর ২টার দিকে।

বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা জয়নুল আবেদীন ফারুকের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য দেন দলের ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শাহজাদা মিয়া, সাবেক সংসদ সদস্য শাহ মো. আবু জাফর, সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ, যুবদলের সভাপতি সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, জেলা বিএনপির আহ্বায়ক মোদাররেস আলী ঈসা, কৃষক দলের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম বাবুল, মহিলা দলের যুগ্ম সম্পাদক চৌধুরী নায়াব ইউসুফ, ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রাশেদ আহমেদ।

সভা সঞ্চালনা করেন জেলা বিএনপির সদস্যসচিব এ কে কিবরিয়া স্বপন ও মহানগর বিএনপির সদস্যসচিব গোলাম মোস্তফা মিরাজ।

ফরিদপুরের রাজবাড়ী রাস্তার মোড়ে সমাবেশ শেষে রোড মার্চ তালমা মোড়, গোপালগঞ্জের রাজৈরের বরইতলা মোড় ও মাদারীপুরের মোস্তফাপুর মোড়ে জনসভার মধ্য দিয়ে শেষ হওয়ার কথা রয়েছে।

[প্রতিবেদনটি প্রথম প্রকাশিত হয়েছিল ০৩ অক্টোবর ২০২৩ তারিখে: ফেইসবুক লিংক]