কুড়িগ্রামে ধরলা নদী ভাঙন রোধে ক্ষতিগ্রস্তদের মানববন্ধন

৩৮ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে ভাঙন কবলিত পরিবারের সদস্যরা কুড়িগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে এসে সমবেত হন।

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 11 Sept 2022, 09:04 AM
Updated : 11 Sept 2022, 09:04 AM

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলায় ধরলা নদীর ভাঙন রোধের দাবিতে মানববন্ধন করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্যরা।

রোববার সকাল ১১টায় কুড়িগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে ঘণ্টাব্যাপী এ মানববন্ধন করেন উপজেলার নাওডাঙ্গা ইউনিয়নের গোড়কমণ্ডপ এলাকায় নদী ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্তরা।

এর আগে দীর্ঘ ৩৮ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে ভাঙনের শিকার প্রায় ২০০ পরিবার কুড়িগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে এসে সমবেত হন।

এ সময় বক্তৃতা করেন, নদী ভাঙনের শিকার আব্দুল মালেক, নছিম উদ্দিন। তাদের দাবির সঙ্গে সংহতি জানিয়ে নাওডাঙ্গা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মো. হাছেন আলী, ইউপি সদস্য আয়াজ উদ্দিন, শিক্ষার্থী আব্দুস সালাম, সমাজসেবক সিদ্দিক হোসেন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আইয়ুব আলীও বক্তৃতা করেন ।

বক্তারা বলেন, ধরলা নদীর ভাঙনে বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধসহ চলতি বছরে ৩৫০টি এবং গত তিন বছরে ৬৮১টি বাড়ি ভেঙেছে। এতে এক হাজার একর ফসলি জমিন নদীগর্ভে চলে গেছে। ভাঙনের ঝুঁকিতে রয়েছে আবাসন প্রকল্পসহ ফসলি জমিন, মাছের ঘের ও গরুর প্রকল্প।

বক্তারা অভিযোগ করেন, ভাঙ্ন রোধে বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত আবেদন করলেও আজ অবধি পানি উন্নয়ন বোর্ড কোনো সাড়া দেয়নি।

এ কারণেই দীর্ঘ পথ পাড়ি দিয়ে মানববন্ধনসহ জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানান বক্তারা।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক