ইইউ বিশেষজ্ঞ দলের সঙ্গে বিএনপির ‘ভার্চুয়াল বৈঠক’

নজরুল ইসলাম খান বলেন, “বৈঠকে দেশের সার্বিক পরিস্থিতি, মানবাধিকার, নির্বাচন প্রভৃতি বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে।”

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 2 Dec 2023, 07:54 PM
Updated : 2 Dec 2023, 07:54 PM

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন পর্যবেক্ষণে বাংলাদেশে আসা ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) কারিগরি বিশেষজ্ঞ দলের সঙ্গে ‘ভার্চুয়াল বৈঠক’ করার কথা জানিয়েছেন বিএনপির নেতারা।

শনিবার বিকালে প্রায় দুই ঘণ্টার এই বৈঠকে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খানসহ ৫ জন অংশ নেন।

নজরুল ইসলাম খান রাতে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “ইইউ মিশনের আমন্ত্রণে এই বৈঠক হয়। বৈঠকে দেশের সার্বিক পরিস্থিতি, মানবাধিকার, নির্বাচন প্রভৃতি বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে।”

বিএনপি নেতারা জানান, বৈঠকে তাদের দলের পক্ষ থেকে দেশের বর্তমান পরিস্থিতি, ২৮ অক্টোবরের পর থেকে বিএনপিসহ বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের ‘নির্বিচারে’ গ্রেপ্তার, ‘গায়েবী ও মিথ্যা’ মামলা দায়ের, নেতাকর্মীদের বাড়ি বাড়ি তল্লাশি, পরিবারের সদস্যদের গ্রেপ্তার, ‘দমনপীড়নের’ কথা তুলে ধরা হয়েছে।

এছাড়া দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীসহ ‘কয়েক হাজার’ নেতাকর্মীর গ্রেপ্তার হওয়া, দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়সহ জেলা কার্যালয়গুলো তালাবন্ধ অবস্থায় থাকা এবং বিভিন্ন পুরনো মামলায় বিএনপি নেতাদের সাজা দেওয়ার বিষয়গুলোও তুলে ধরার কথা বলছেন তারা।

বিএনপি নেতারা বলছেন, তাদের ‘বাদ দিয়ে’ সরকার একটি ‘সাজানো’ নির্বাচন করছে, বিভিন্ন নেতাদের ‘চাপ দিয়ে’ নির্বাচনে আনছে এবং সরকারি দল ‘ডামি প্রার্থী’ দিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সংখ্যা বাড়িয়ে দেখাচ্ছে বলে তারা বৈঠকে জানিয়েছেন।

বাংলাদেশে এবারের নির্বাচনে পূর্ণাঙ্গ কোনো পর্যবেক্ষক দল পাঠাচ্ছে না ইইউ। তার বদলে চার সদস্যের এই কারিগরি বিশেষজ্ঞ দল দুই মাসের মিশন নিয়ে গত বুধবার ঢাকায় পৌঁছায়।

এই দলের চার সদস্য হলেন- ডেভিড নোয়েল ওয়ার্ড (ইলেকশন এক্সপার্ট), আলেকজান্ডার ম্যাটাস (ইলেকটোরাল এনালিস্ট), সুইবেস শার্লট (ইলেকটোরাল এনালিস্ট) এবং রেবেকা কক্স (লিগ্যাল এক্সপার্ট)।

৭ জানুয়ারি ভোটের তারিখ রেখে নির্বাচনের প্রস্তুতি এগিয়ে নিচ্ছে নির্বাচন কমিশন। আওয়ামী লীগ ও সমমনা দলগুলো, সংসদে প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টি এবং কয়েকটি নতুন দল পুরোদমে ভোটের পথে থাকলেও বিএনপি ও সমমনা দলগুলো তফসিল প্রত্যাখ্যান করে নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে হরতাল-অবরোধের মত কর্মসূচিতে রয়েছে।