হাসিনা-বাইডেন সেলফি ‘অনেক কথা বলছে’: হাছান মাহমুদ

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে শেখ হাসিনার আলোচনা ফলপ্রসু হয়েছে বলেও মনে করছেন তিনি।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 9 Feb 2024, 01:29 PM
Updated : 9 Feb 2024, 01:29 PM

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সেলফি ‘অনেক কথা বলছে’ বলে মনে করেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। 

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাংলাদেশের অত্যন্ত ভালো সম্পর্ক রয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেছেন, “দুই দেশের সম্পর্ক আগামীতে আরও ঘনিষ্ঠ হবে।” 

ভারতে জি টোয়েন্টি সম্মেলনে অতিথি হয়ে যাওয়া শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা হওয়ার পর বাইডেন সেলফি নিয়ে রোববার সচিবালয়ে হাছান মাহমুদ বলেন, “আপনারা (সাংবাদিক) ছবি তোলেন। সেই ছবি নিয়ে অনেক গবেষণা হয়, ছবি অনেক কথা বলে। 

গতকালের ছবির ভাষা আপনি সাংবাদিক হিসেবে নিশ্চিয়ই বুঝতে পারছেন এবং যারা বোদ্ধা ব্যক্তি তারাও বুঝতে পারছে যে, তাদের (যুক্তরাষ্ট্র) সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক অত্যন্ত ভালো, ঘনিষ্ঠ এবং এটি আগামী দিনে আরও ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক হবে।” 

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে শেখ হাসিনার আলোচনা ‘ফলপ্রসু’ হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, “সেটির বিস্তারিত তারা ফিরে আসলে আপনারা জানতে পারবেন।” 

রুশ পরররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভের ঢাকা ঘুরে যাওয়া, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমান্যুয়েল ম্যাক্রোঁর বাংলাদেশ সফর নিয়ে তিনি বলেন, “এতেই প্রমাণিত হয় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সরকার এবং প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বিশ্ব নেতাদের সুসম্পর্ক রয়েছে। 

“কয়েক দিন আগে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে দুদিন ধরে নিরাপত্তা সংলাপ হয়েছে। এই ঘটনাপ্রবাহ যারা অনুধাবন করতে পারেন তারা সঠিকভাবে অনুধাবন করতে পারেন যে বর্তমান সরকারের সাথে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে বিশ্ব সম্প্রদায়ের কী সুসম্পর্ক রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আমাদের যে বহুমাত্রিক সম্পর্ক রয়েছে, সেটি আরও ঘনিষ্ঠ করার জন্য দুদেশ কাজ করছে।” 

বিএনপি হতাশ হয়ে পড়েছে বলেও মনে করেন হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, “গতকাল মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্যের মাধ্যমে এটিই স্পষ্ট হয়েছে তাদের এক দফার আন্দোলন যে অসম্ভব, এটা কঠিন কাজ, এটি তিনি তার বক্তব্যের মাধ্যমে স্বীকার করে নিয়েছেন। 

“তিনি বলেছেন, এক দফার আন্দোলন কঠিন সময়ে আসছে।… তাদের এক দফার আন্দোলন যে আদায় করা সম্ভবপর নয় এটি তার বক্তব্যের মাধ্যমেই স্পষ্ট।”

(প্রতিবেদনটি প্রথম ফেইসবুকে প্রকাশিত হয়েছিল ১০ সেপ্টেম্বর ২০২৩ তারিখে: ফেইসবুক লিংক)