জোট আছে, জোট থাকবে: তরীকত চেয়ারম্যান

গত দুইবারের মত দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনেও নৌকা প্রতীক নিয়ে ভোট করার প্রত্যাশা রাখেন নজিবুল বশর মাইজভান্ডারি।

চট্টগ্রাম ব্যুরোবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 30 Nov 2023, 11:25 AM
Updated : 30 Nov 2023, 11:25 AM

বাংলাদেশ তরীকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভান্ডারি দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে মনোননয়নপত্র জমা দিয়ে বলেছেন, আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে তাদের জোট আছে এবং জোট থাকবে।  

বৃহস্পতিবার দুপুরে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে গিয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তা জেলা প্রশাসক আবুল বাসার মোহাম্মদ ফখরুজ্জামানের কাছে মনেনয়নপত্র জমা দেন তিনি। 

পরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, গত দুইবারের মত দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনেও তিনি নৌকা প্রতীক নিয়ে ভোট করার প্রত্যাশা রাখেন। 

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোটের শরিক দল বাংলাদেশ তরীকত ফেডারেশন। দলের চেয়ারম্যান নজিবুল বশর চট্টগ্রাম-২ (ফটিকছড়ি) আসনের বর্তমান এমপি। 

এবার এই আসনে আওয়ামী লীগের মনোননয়ন দিয়েছে প্রয়াত আওয়ামী লীগ নেতা রফিকুল আনোয়ারের মেয়ে সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য খদিজাতুল আনোয়ার সনিকে। 

তবে মনোনয়নপত্র জমার পর্ব শেষে সার্বিক পরিস্থিতি দেখে শরিক দলগুলোকে আসন ছেড়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হতে পারে বলেও ইংগিত দিয়ে আসছে আওয়ামী লীগ।  

এ বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে নজিবুল বশর বলেন, "জোট এখনো বহাল। জোটের নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জোটের শরিক দলসহ আরো অনেক দল নৌকা চাইছে।  

"সব দলের সবাই মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পর জোটের সভা হবে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে। আমাদের দলের অনেকেই মনোনয়ন ফরম নিয়েছি এবং জমা দিয়েছি। জোটের মিটিং এ দর কষাকষি হবে। আমরা কত আসন পাব।" 

নজিবুল বশর বলেন, "যে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে, সেটা আওয়ামী লীগের মনোনয়ন। নৌকার চিঠি পরে দেওয়া হবে। কয়েকটি দল নির্বাচন কমিশনে নৌকা প্রতীক নিয়ে ভোট করার আগ্রহ জানিয়ে চিঠিও দিয়েছে। এছাড়াও জোটের অনেকে নৌকা প্রতীক চেয়েছে। ২০১৪ ও ২০১৮ সালে আমি নৌকা নিয়ে ভোট করেছি। এবারও করব।"  

নজিবুল বশর বলেন, "আমার আসনে সনি, আমার ভাতিজা (বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির প্রতিষ্ঠাতা সৈয়দ সাইফুদ্দিন আহমদ মাইজভান্ডারি) সহ অনেকে মনোনয়ন ফরম নিয়েছে৷ সবাইকে স্বাগত জানাই। আমরা সবাই সেখানে একসাথে কাজ করি।  

“নির্বাচন করতে হবে সবাই মিলে, অংশগ্রহণমূলক। এখনো দেশে বিদেশে ষড়যন্ত্র চলছে। বড় যুদ্ধ আসবে নির্বাচনের পর। বর্হিবিশ্বসহ সব দিক থেকে৷ তখন আওয়ামী লীগ কি একা যুদ্ধ করবে? নাকি জোটকে নিয়ে যুদ্ধ করবে। তাই জোট আছে, জোট থাকবে।"  

একে অন্যের বিরুদ্ধে বিষোদগার করা ও বিরোধিতা করার সংস্কৃতি থেকে বেরিয়ে আসতে সব দলের নেতাদের প্রতি আহ্বান জানান তরীকত চেয়ারম্যান।