এমরানের ‘নাটক’ সম্ভবত সপরিবারে আমেরিকার ভিসা পেতে: হাছান মাহমুদ

“আলোচনায় থাকার জন্য নাটকটি সাজিয়েছেন বলে অনেকে বলছেন,” বলেন তিনি।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 9 Feb 2024, 01:05 PM
Updated : 9 Feb 2024, 01:05 PM

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল পদ থেকে বরখাস্তের পর এমরান আহম্মদ ভূঁইয়ার সপরিবারে ঢাকায় যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসে অবস্থানকে ‘নাটক’ বলেছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ।

তার ধারণা, বরখাস্ত আইন কর্মকর্তা সপরিবারে যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা চাইছেন। আর আলোচনায় থাকার জন্য এই কাজ করেছেন।

দুই দিন আলোড়ন সৃষ্টি করার এই ঘটনার বিষয়ে রোববার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের কাছে নিজের অভিমত জানান মন্ত্রী।

বিষয়টি নিয়ে এক প্রশ্নে হাছান মাহমুদ বলেন, “তিনি (এমরান) আশ্রয় পাননি, তিনি (দূতাবাসে) গিয়েছিলেন। অপেক্ষা করে গেইট থেকে চলে আসছেন। আমার মনে হয়েছে এটি একটি নাটক।

“সম্ভবত তিনি সপরিবারে মার্কিন ভিসা চাচ্ছেন, সেজন্য এটা নাটক বলে অনেকে বলেছেন। আলোচনায় থাকার জন্য নাটকটি সাজিয়েছেন বলে অনেকে বলছেন।”

বিভিন্ন মতাদর্শের মানুষ যে সরকারি কাজকর্মের সঙ্গে যুক্ত আছে, সেটি এই ঘটনায় স্পষ্ট হয়েছে বলে মনে করেন তথ্যমন্ত্রী।

“বিএনপি বলে দলীয় কর্মীদের আমরা বিভিন্ন পদে বসিয়েছি সেটি যে সঠিক নয় সেটি এই ঘটনার মাধ্যমে প্রমাণিত হয়”, বলেন তিনি।

নোবেল জয়ী ড. মুহম্মদ ইউনূসের বিরুদ্ধে শ্রম আদালতে মামলা প্রত্যাহার করতে শতাধিক নোবেল বিজয়ী ও পশ্চিমা বিশিষ্টজনদের বিবৃতির বিপক্ষে পাল্টা বিবৃতিতে সিই করেননি এমরান। উল্টা গণমাধ্যমকে বলেন, তিনি মনে করেন ড. ইউনূস ‘বিচারিক হয়রানির শিকার’।

এমরানের এমন বক্তব্যকে ‘শৃঙ্খলা ভঙ্গ’ উল্লেখ করে প্রতিক্রিয়া দেখান আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। গত শুক্রবার পদ থেকে বরখাস্ত করে আদেশ জারি হয়।

একই দিন বিকেলে নিরাপত্তাহীনতার কথা জানিয়ে সপরিবারে ঢাকায় যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসে অবস্থান নেন এমরান। সেখান থেকেই গণমাধ্যমকে বার্তা পাঠান, দুই কিশোরী কন্যা এবং স্ত্রী সমেত ছবিও দেন।

তবে যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাস বিষয়টি নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানায়নি। আর কয়েক ঘণ্টা পর পুলিশি নিরাপত্তায় এমরান বাসায় ফেরেন। এরপর এখন পর্যন্ত তার কোনো বক্তব্য আসেনি।

(প্রতিবেদনটি প্রথম ফেইসবুকে প্রকাশিত হয়েছিল ১০ সেপ্টেম্বর ২০২৩ তারিখে: ফেইসবুক লিংক)