বিধানসভা নির্বাচন: তিন রাজ্যে এগিয়ে বিজেপি, একটিতে কংগ্রেস

নভেম্বর জুড়ে ভারতের পাঁচ রাজ্য মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, ছত্তিসগড়, তেলেঙ্গানা ও মিজোরামে বিধানসভা নির্বাচনে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

নিউজ ডেস্ক
Published : 3 Dec 2023, 08:42 AM
Updated : 3 Dec 2023, 08:42 AM

ভারতের তিন রাজ্য মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান ও ছত্তিসগড়ে উৎসব শুরু করেছে বিজেপি। বিধানসভা নির্বাচনে তিনটি রাজ্যেই সহজ জয় পেতে চলেছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর দল।

বাকি পড়ে তেলেঙ্গানা। সেখানে এগিয়ে রয়েছে কংগ্রেস।

নভেম্বর জুড়ে ভারতের পাঁচ রাজ্য মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, ছত্তিসগড়, তেলেঙ্গানা ও মিজোরামে বিধানসভা নির্বাচনে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

রোববার সকাল ৮টা থেকে মিজোরাম বাদে বাকি চার রাজ্যের ভোট গণনা শুরু হয়। খ্রিস্টান অধ্যুষিত মিজোরামের বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন ও গির্জাগুলোর অনুরোধে নির্বাচন কমিশন ভোট গণনার তারিখ একদিন পিছিয়ে সোমবার করেছে।

ভোট হওয়া পাঁচ রাজ্যের মধ্যে বর্তমানে শুধু মধ্যপ্রদেশের ক্ষমতায় রয়েছে বিজেপি। ছত্তিসগড় ও রাজস্থানে ক্ষমতায় কংগ্রেস পার্টি।

মধ্যপ্রদেশে এবার কংগ্রেস বিজেপিকে পরীক্ষায় ফেলতে চলেছে বলে ভোটের আগের পূর্বাভাসে বলা হচ্ছিল। কিন্তু রোববার দুপুরের মধ্যেই সেই পূর্বাভাস মিথ্যা প্রমাণিত হয়ে গেছে। যদিও ভোট গণনা এখনো বাকি। কিন্তু বিজেপি যে সেখানে সহজ জয় পেতে চলেছে তা এখন অনেকটাই নিশ্চিত। সেখানে ২৩০টি আসনের মধ্যে ১৬১টিকে এগিয়ে বিজেপি। কংগ্রেস এগিয়ে ৬৬টিতে। সরকার গঠন করতে চাই ১১৬টি আসন।

মধ্যপ্রদেশে বিজেপির সঙ্গে কোনো ধরণের প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে তুলতে না পারা কংগ্রেস বরং রাজস্থানে ক্ষমতা হারাতে চলেছে। বিজেপি সেখানে ১১২টি আসনে এগিয়ে, কংগ্রেস ৭২টিতে। ১৯৯ আসনের বিধানসভায় সরকার গঠনে চাই ১০০ আসন।

ছত্তিসগড়ে বিজেপি ৫৪টিতে এবং কংগ্রেস ৩৩টি আসনে এগিয়ে। ৯০ আসনের বিধানসভায় জিততে চাই ৪৬ আসন।

তেলেঙ্গানায় কংগ্রেস এগিয়ে থাকলেও হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হচ্ছে ‘ভারত রাষ্ট্র সমিতি’ (বিআরএস)- এর সঙ্গে। সেখানে কংগ্রেস ৬৪ ও বিআরএস ৪১ আসনে এগিয়ে। ১১৯ আসনের বিধানসভায় সরকার গঠনে চাই ৬০ আসন। এ রাজ্যে বিজেপি এগিয়ে ৮টি আসনে।

Also Read: ভারতে বিধানসভা নির্বাচন: চার রাজ্যে চলছে ভোট গণনা

আগামী বছর ভারতে জাতীয় নির্বাচন। তার আগে এই পাঁচ রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল জাতীয় নির্বাচনে কোনো দল কী অবস্থানে রয়েছে সে সম্পর্কে খানিকটা হলেও পূর্বাভাস পাওয়া যাবে বলে এতদিন বলা হচ্ছিল।

এখন ফলাফল দেখে মনে হচ্ছে মোদীর নেতৃত্বের উপর ভারতের জনগণের আস্থা আরো বেড়েছে।