গুজরাটে ভোটের আগে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যের গুলিতে ২ সহকর্মী নিহত

হতাহত চারজন এবং তাদের উপর গুলি চালানো সহকর্মী প্যারামিলিটারি বাহিনী মণিপুরের ইন্ডিয়ান রিজার্ভ ব্যাটেলিয়ন (আইআরবি) সদস্য, বিধানসভা ভোটের নিরাপত্তায় তাদের মোতায়েন করা হয়েছিল।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 27 Nov 2022, 04:21 AM
Updated : 27 Nov 2022, 04:21 AM

ভারতের গুজরাটে সহকর্মীর গুলিতে নিরাপত্তা বাহিনীর ২ সদস্য নিহত এবং আরও দুইজন আহত হয়েছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

শনিবার সন্ধ্যায় পরবান্দারের কাছে এই গুলির ঘটনা ঘটে।

এনডিটিভি জানিয়েছে, আগামী মাসে হতে যাওয়া বিধানসভা নির্বাচনের নিরাপত্তা নিশ্চিতে মণিপুরের ইন্ডিয়ান রিজার্ভ ব্যাটেলিয়ন (আইআরবি) থেকে কিছু সদস্যকে গুজরাটে মোতায়েন করা হয়েছে। হতাহত চারজন এবং তাদের উপর গুলি চালানো সহকর্মী এই প্যারামিলিটারি বাহিনী আইআরবির-ই সদস্য।

তবে শনিবার ঝগড়াঝাটির পর গুলির ঘটনার সময় তারা সক্রিয় দায়িত্বে ছিলেন না: হামলাকারী একে-৪৭ বন্দুক দিয়েই সহকর্মীদের ওপর গুলি চালিয়েছেন বলে জানা গেছে।

বিধানসভা নির্বাচনের নিরাপত্তায় আইআরবি-র পাশাপাশি সেন্ট্রাল আর্মড পুলিশ ফোর্সও (সিপিআরএফ) মোতায়েন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পরবান্দারের কালেক্টর ও জেলা নির্বাচনী কর্মকর্তা এএম শর্মা।

পাঁচ সহকর্মীর মধ্যে কী নিয়ে বিবাদ সৃষ্টি হয়েছিল, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

আহত দুই জওয়ানের একজনের পেটে, অন্যজনের পায়ে গুলি লেগেছে।

তাদেরকে প্রথমে পরবান্দার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য দুজনকেই ১৫০ কিলোমিটার দূরে জামনগরের একটি হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

পুলিশের প্রতিবেদনে কনস্টেবল এস ইনাউচাসিংকে হামলাকারী হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে। তার গুলিতে নিহত ২ জওয়ানের নাম- থোইবা সিং ও জিতেন্দ্র সিং। আহত হয়েছে চোরাজিৎ আর রোহিকানা, তারা দুইজনই কনস্টেবল।

এ পাঁচজনই মণিপুরের বাসিন্দা।

গুজরাটে নির্বাচনী দায়িত্বে আসার পর তারা পরবান্দার থেকে প্রায় ২৫ কিলোমিটার দূরের টুকডা গোসা গ্রামের একটি সাইক্লোন সেন্টারে থাকছিলেন।

পরবান্দার জেলায় বৃহস্পতিবার প্রথম দফার ভোট হবে। ৫ ডিসেম্বর দ্বিতীয় দফার ভোট শেষে ৮ ডিসেম্বর ফল জানা যাবে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক