সৌন্দর্য রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ তিনটি ধাপ

ত্বকের যত্নে যেমন প্রয়োজন রূপর্চর্চা তেমনি অন্তর আত্মার যত্নের জন্য চাই প্রকৃতির কাছে যাওয়া।

লাইফস্টাইল ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 18 Nov 2022, 01:25 PM
Updated : 18 Nov 2022, 01:25 PM

রূপের আভা ফুটিয়ে তুলতে শরীরের পাশাপাশি আত্মিক শোভা বৃদ্ধিরও প্রয়োজন পড়ে।

আর এজন্য রূপচর্চার সঙ্গে ‘হলিস্টিক বিউটি’র দরকার হয়।    

যুক্তরাষ্ট্রের স্পা, ফিটনেস ও বিউটি পরিচালক স্যাম কুপার বিশ বছরেরও বেশি সময় স্পা পরিচালক হিসেবে কাজ করছেন।

তার কথায়, “প্রসাধনী ত্বকে পরিবর্তন আনে। যে কোনো ফেইশল থেকে শুরু করে ‘বোটক্স’ পর্যন্ত সব কিছুই ত্বকের সৌন্দর্য বাড়ায়। তবে দৈনন্দিন জীবনধারা যে চেহারার ওপরে প্রভাব ফেলে সেদিকেও নজর দিতে হয়।”

এক্সফলিয়েশন

এক্সফলিয়েশন দুই ধরনের হয়। রাসায়নিক এক্সফলিয়েশন সক্রিয় উপাদান যেমন- আলফা-হাইড্রোক্সি অ্যাসিড দিয়ে তৈরি পণ্য দিয়ে করা হয় যা মৃত কোষকে দূর করে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায়।

মেকানিক্যাল বা যান্ত্রিক এক্সফলিয়েশন ত্বকের মৃত কোষ দূর করতে ছোট দানার স্ক্রাব ও ব্রাশ ব্যবহার করে থাকে। ফলে ত্বকে ক্ষুদ্র ক্ষতের সৃষ্টি হতে পারে।

কুপার মনে করেন, মেকানিক্যাল এক্সফলিয়েশনের চেয়ে রাসায়নিক এক্সফলিয়েশন ভালো।

ওয়েলঅ্যান্ডগুড ডটকম’য়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে তিনি বলেন, “আগে আমি ‘ম্যানুয়াল এক্সফলিয়েশন’ ব্যবহার করতাম। তবে সৌন্দর্য-বিশারদরা আমাকে রাসায়নিকভাবে ত্বক এক্সফলিয়েট করার কথা বলেন।”

রাসায়নিক এক্সফলিয়েটরে দানাদার কিছু থাকে না। কিন্তু তা ত্বকের মৃত কোষ দূর করে উজ্জ্বলতা বাড়ায়। এছাড়াও, ত্বকে ব্যবহৃত অন্যান্য প্রসাধনী শোষণে ও কার্যকারিতা বাড়াতে সহায়তা করে।

ফেইস অয়েল

কুপার বলেন, “আমি ফেইস অয়েল ভালোবাসি”।

অনেকেই তেল ব্যবহারে ভয় পান কারণ এর ফলে ব্রেক আউট দেখা দিতে পারে। কিন্তু কুপারের মতে, ত্বকের ধরন বুঝে তেল ব্যবহার করলে তা তৈলাক্ত ত্বকেও উপকার করে।

হলিস্টিক বিউটি

নিজের শরীরের সঙ্গে কেমন আচরণ করা হয় তার প্রভাব পড়ে চেহারায়। রূপচর্চার মতো নিয়মিত জীবনযাত্রাও সৌন্দর্যের গুরুত্বপূর্ণ অংশ।

কুপার বলেন, “টেক্সাসের ‘ক্যানন র‌্যাঞ্চ স্পা’তে কাজ করেছি। সেখানকার বাইরের পরিবেশ, খাবার, পুষ্টি ইত্যাদি অনেক বেশি ছিল। এই সবকিছুই আমার সৌন্দর্যের অন্তর্ভুক্ত ছিল।”

তিনি আরও বলেন, “অনেকগুলো পণ্য ছিল এবং আমি তা ব্যবহার করতে পছন্দও করতাম। তবে যখন বাইরে হাইকিংয়ে যেতাম বা প্রকৃতির কাছাকাছি থাকতাম তখন আমার ব্যাক্তিত্ব ও অনুভূতি পালটে যেত। সব কিছুই অনেক ম্লান হয়ে যেত।”

আমরা যেসব খাবার খাই তা শরীরে একইভাবে কাজ করে। চিনি খাওয়ার মাত্রা কমানো থেকে যতটা সম্ভব অ্যালকোহল পান না করা নিজের যত্নের জন্য জরুরি।

তাই কেবল রূপচর্চা নয়, এর পাশাপাশি খাদ্যাভ্যাস ও জীবনযাত্রাও সৌন্দর্য রক্ষায় ভূমিকা রাখে।

আরও পড়ুন

Also Read: ত্বকের যত্নে নানান তেল

Also Read: অতিরিক্ত ‘এক্সফলিয়েশন’ থেকে ত্বকের ক্ষতি

Also Read: সারাদিন কর্ম শক্তি ধরে রাখার উপায়

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক