পেঁয়াজ কাটার সময় কান্না বন্ধ করার উপায়

অনুভূতিতে আঘাত না দিয়েও কাঁদাতে জানে পেঁয়াজ।

লাইফস্টাইল ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 20 Feb 2024, 01:15 PM
Updated : 20 Feb 2024, 01:15 PM

দুঃখ-সুখে মানুষ কাঁদে, আর কাঁদে পেঁয়াজের ঝাঁজে।

অরণ্যে রোদন করে কোনো লাভ না হলেও পেঁয়াজের ঝাঁজে চোখের পানি ঝরানোতে অন্তত একটা কাজ হয়; মানে পেঁয়াজগুলো কাটা হয়ে গেল।

তবে এই ঝাঁজালো কান্নার মতো অস্বস্তিকর অবস্থাও এড়ানো যায়।

পেঁয়াজ কাটার সময় চোখে যে কারণে পানি আসে

এই বিষয়ে ওয়েলঅ্যান্ডগুড ডটকম’য়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে যুক্তরাষ্ট্রের ‘ইন্সটিটিউট অব কালিনারি এডুকেশন’য়ের প্রধান রন্ধন প্রশিক্ষক এরিক রস বলেন, “পেঁয়াজ কাটার সময় চোখে পানি আসার প্রধান কারণ হল, এতে থাকা সালফিউরিক অ্যাসিড।”

“পেঁয়াজ ও অন্যান্য মসলা যেমন- রসুন, শ্যালট, লিকস, চিভস, র‌্যাম্পস, এমনকি পেঁয়াজ কলি সালফার শোষণ করে। যখন পেঁয়াজ কেটে ফেলা হয় তখন এর মধ্যকার কোষের প্রাচীরগুলো ভেঙে যায়। ফলে অ্যামিনো অ্যাসিডের সাথে মিশ্রিত সালফার বাতাসে ছড়িয়ে যায়”- ব্যাখ্যা করেন তিনি।

এরপর সেটা আঠালো হতে শুরু করে। আর অক্সিজেনের সংস্পর্শে চোখ বা চারপাশের অংশে আসলে পানি সৃষ্টি হয়।

চোখে জ্বালাপোড়া হওয়ার প্রধান কারণ হল, সালফিউরিক অ্যাসিড।

মনে রাখতে হবে, পেঁয়াজ যত কুচি করা হবে বাতাসে তত সালফার যৌগ ছড়িয়ে যাবে। আর চোখে পানি আসার প্রবণতা বাড়বে। তাছাড়া কোন পরিবেশে পেঁয়াজ কাটা হচ্ছে সেটাও গুরুত্বপূর্ণ।

রস বলেন, “যদি গরম পরিবেশে পেঁয়াজ কাটা হয় তাহলে সালফার দ্রুত বাতাসে ছড়িয়ে যায় এবং কান্নার প্রবণোতা বাড়ে। অন্যদিকে ঠাণ্ডা পরিবেশে এর গতি ও প্রকোপ ধীর হয়।”

পেঁয়াজা কাটার সময় কান্না বন্ধ করার কয়েকটি পন্থা সম্পর্কে এই রন্ধন প্রশিক্ষক।

ধারালো ছুরি ব্যবহার

রসের মতে, “পেঁয়াজ কাটার সময় কান্না ঠেকানোর প্রথম উপায় হল ধারালো ছুরি ব্যবহার করা। ছুরি যত ধারালো হবে পেঁয়াজ কাটা তত বেশি নিরাপদ হবে।”

তিনি বলেন, “যদি পেঁয়াজ কাটতে কম ধারালো বা ধারহীন ছুরি ব্যবহার করা হয় তাহলে পেঁয়াজের কোষের দেয়াল ঠিকভাবে না কেটে বরং তাতে পেঁষণের সৃষ্টি হয়। ফলে সালফার যৌগগুলো বেশি মাত্রায় বাতাসে ছড়িয়ে যায় আর চোখে পানি আসে।” 

কিছুক্ষণের জন্য পেঁয়াজ ঠাণ্ডা করে নেওয়া

যদি সবসময় পেঁয়াজ রান্নাঘরে রাখা হয় তাহলে কাটার আগে কয়েক মিনিটের জন্য ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা করে নিতে হবে। ঠাণ্ডা পেঁয়াজ কাটার সময় পেঁষন সৃষ্টি হলেও চোখে পানি আসার প্রবণতা অনেকটাই কমে যায়।

“ঠাণ্ডা পেঁয়াজ বাতাসে কম পরিমাণ সালফার যৌগ ছড়ায়। তাই চোখে পানিও কম আসে”- বলেন রস।

ঠাণ্ডা বা আর্দ্র পরিবশে পেঁয়াজ দ্রুত নষ্ট হয়ে যায়। তবে হালকা ঠাণ্ডাভাবের পেঁয়াজ কাটা অনেক বেশি সহজ।

বায়ু চলাচলের জন্য ফ্যান ব্যবহার করা

রস পরামর্শ দেন, “ফ্যানের বাতাসে সালফার যৌগ অন্যদিকে ছড়িয়ে দেয়। ফলে চোখে পানি আসে না। তবে পাখার বাতাসের প্রবাহ রাখতে হবে রান্নাঘরের বাইরের বাইরের দিকে।”

প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম

খুব বেশি ঝাঁজালো পেঁয়াজ কাটতে গেলে এর জন্য ভিন্ন আয়োজনের প্রয়োজন।

শূনতে হাস্যকর মনে হলেও রস বলেন, “যেমন- আঁটসাঁট গগলস, সাঁতার কাটার চশমা বা সানগ্লাস পরে নেওয়া যেতে পারে। এতে চোখে ঝাঁজ লাগবে না, আপানিও কাঁদবেন না।”

ছবি: পেক্সেল্স ডটকম।

আরও পড়ুন

Also Read: পেঁয়াজের রকমফের আর রান্নায় ব্যবহারের পন্থা

Also Read: পেঁয়াজ সংরক্ষণের উপায়

Also Read: দূষণের কারণে চোখে অস্বস্তি